ইউপি পরিষদের হামলা ও ভাংচুরের প্রতিবাদে কমলগঞ্জে ৫ চেয়ারম্যানের  ১ ঘন্টা অবস্থান কর্মসূচী

April 17, 2016, এই সংবাদটি ১২৬ বার পঠিত

প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ॥ মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রার্থী বাছাই চলাকালে রহিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভায় স্থানীয় আওয়ামীলীগ সভাপতির নেতৃত্বে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে আওয়ামীলীগ সমর্থিত ৫টি ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যানরা ১ ঘন্টা অবস্থান কর্মসূচী পালন করেছেন। ১৫ এপ্রিল  শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টা থেকে বিকাল সাড়ে ৫ টা পর্যন্ত  উপজেলা পরিষদ চত্বরে এই অবস্থান কর্মসূচী পালন করেন। অবস্থান কর্মসূচীতে অংশ গ্রহন করেন ১নং রহিমপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ইফতেখার আহমেদ বদরুল, ৪নং শমশেরনগর ইউপি চেয়ারম্যান জুয়েল আহমেদ, ৬নং আলীনগর ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক বাদশা, ৭ নং আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যান সাব্বির আহমেদ ভূঁইয়া ৯নং ইউপি চেয়ারম্যান সোলেমান মিয়া। অবস্থান কর্মসূচীতে একাত্বতা প্রকাশ করেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এম, মোসাদ্দেক আহমেদ মানিক, সাংগঠনিক সম্পাদক প্রভাষক হারুন অর রশীদ ভূঁইয়া, মুন্সিবাজার ইউপি আওয়ামীলীগ সভাপতি ইকবাল আহমেদ চৌধুরী, ইসলামপুর ইউপি আওয়ামীলীগের সভাপতি ফজলুল বক্ত প্রমুখ। অবস্থান কর্মসুচিতে উপস্থিত চেয়ারম্যানরা রহিমপুর ইউপি পরিষদ কার্যালয়ে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে চেয়ার টেবিলসহ গুরুত্বপুর্ণ জিনিসপত্র তছনছ ও ভাংচুর করার সাথে জড়িত রহিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি জুনেল আহমেদ তরফদার ও তার বাহিনীর সদস্যদের আইনের আওতায় আনার দাবী জানান।

অবস্থান কর্মসুচীতে অংশ নেয়া চেয়ারম্যানরা জানান, ১৩ এপ্রিল রহিমপুর ইউনিয়ন পরিষদ হল রুমে উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে রহিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উদ্যোগে আসন্ন ইউপি নির্বাচন উপলক্ষ্যে দলীয় প্রাথী বাছাই  চলাকালে রহিমপুর আওয়ামীলীগ সভাপতি জুনেল আহমেদ তরফদারের নেতৃত্বে  সভায় হামলা চালিয়ে চেয়ার-টেবিল ভাংচুর ও অফিসিয়াল কাগজপত্রাদি তছনছ করা হয়। উপজেলা নেতৃবৃন্দ পুলিশি নিরাপত্তায় সভা মুলতবি করেন চলে আসেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে রহিমপুর আওয়ামীলীগ সভাপতি সভাপতি জুনেল আহমেদ তরফদার বলেন, আমি রহিমপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সম্পাদক ছিলাম, আওয়ামীলীগের সম্পাদক ছিলাম, বর্তমানে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি, কালীপ্রসাদ উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি, মুন্সীবাজার ব্যবসায়ী সমিতি ও মসজিদ কমিটির সভাপতি। আর বর্তমানে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে দলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী কথা বলতে গিয়ে কারো কারো রক্তচক্ষুৃ হলাম। রহিমপুর ইউনিয়নের ওয়ার্ড কমিটি সহ তৃণমুলের জনগন আমার সাথে আছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •