ঈদকে সামনে রেখে মৌলভীবাজারে ব্যাপক চাঁদাবাজী

June 30, 2016, এই সংবাদটি ২৮৭ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার॥ পুলিশ জনগনের বন্ধু কিন্তু বাস্তবে পুলিশ কতটুক হতে পেরেছে জনগনের বন্ধু অনেকের মনেই এমন প্রশ্ন। কিছু অসাধু পুলিশ সদস্যদের জন্য পুলিশের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে এমন অভিযোগ ভুক্তভোগিদের। ঈদকে সামনে রেখে মৌলভীবাজার শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে চেক পোষ্টের নামে যানবাহন দাঁড় করে চাঁদা আদায় করছে পুলিশ।

Moulvibazar-Police-8 চাঁদা দিতে না পারলে যে কোন এক মিথ্যে কারণ দেখিয়ে দেয়া হচ্ছে মামলা। মৌলভীবাজার শহর ও শহরতলীর কয়েকটি স্থান বেজবাড়ী মোড়, প্রেসক্লাব প্রাঙ্গন, জুগিডহর, সমশেরনগর রোড, ইসলামপুর সহ কয়েকটি স্থানে দিনে ও রাতে চেক পোষ্টে যানবাহনের কাগজ পত্র দেখার নামে হয়রানি ও ব্যাপক চাঁদাজির অভিযোগ রয়েছে।

Sequence-11_9
মৌলভীবাজার মডেল থানার (এসআই) সুকমল ভট্রার্চায্য ও কন্সটেবল মোমেন এর বিরুদ্ধে ট্রাক, মাইক্রোবাস, সিএনজি, টমটম ও মটর সাইকেল দাঁড় করিয়ে চাঁদা আদায়ের বেশ কয়েকটি অভিযোগ রয়েছে। ভুক্তভুগীরা জানান শহরের বেজবাড়ী চেক পোষ্ট বসিয়ে মোটরসাইকেল আটক করে প্রথমে মোটরসাইকেলের কাগজ পত্র দেখার কথা বলে সাইকেল থেকে চাবি নিয়ে যায়। পরে কাগজ পত্র সঠিক দেখে হেমল্যাট নেই এই কারণে এক হাজার টাকা দাবী করেন এসআই সুকমল ভট্রার্চায্য কন্সটেবল মোমেন এর মাধ্যমে।

Sequence-11_10
ভুক্তভুগীরা যানান, কতিপয় অসাধু পুলিশ সদস্যের জন্য পুরো বাহিনী এখন ভুগছে ইমেজ ও আস্থার সংকটে। সৎ নিষ্ঠাবান পুলিশ সদস্যদের অনেক সাফল্যমন্ডিত ও অপরাধ দমনে সাহসী কর্মকান্ডই যাচ্ছে দুর্নীতিগ্রস্ত কিছু পুলিশ সদস্যদের অনিয়মের কারনে।

Moulvibazar-Police-9
এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহ্ জালাল জানান, মোটরসাইকেল ও গাড়ীর কাগজ পত্র দেখার জন্য নিদেশ দেয়া আছে, তবে সাইকেলে বা গাড়ীর চাবি নেওয়ার জন্য কোনো নিদেশ দেয়া হয়নি। এ রকম অপরাধ করে থাকলে যে কোনো অফিসার হউক তার বিরুদ্ধে আইনআনুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •