কমলগঞ্জের ধলই চা বাগানে মস্তকবিহিন অজ্ঞাত পরিচয়ের এক নারীর লাশ উদ্ধার

September 22, 2018, এই সংবাদটি ১,১৩১ বার পঠিত

প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ॥ কমলগঞ্জ উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী ধলই চা বাগানের একটি প্লান্টেশন এলাকা থেকে মস্তকবিহিন অবস্থায় এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার ২২ সেপ্টেম্বর দুপুরে চা শ্রমিকরা মস্তকবিহিন নারীর লাশ দেখে থানা কর্তৃপক্ষকে অবহিত করলে বিকাল সাড়ে ৪টায় পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। শনিবার দুপুরে ধলই চা বাগানের ১নং সেকশনে (প্লান্টেশন এলাকা) নারী চা শ্রমিকরা চা পাতা উত্তোলন করতে গিয়ে মস্তকবিহিন এক নারীর লাশ পড়ে থাকতে দেখে প্রথমে চা বাগান ব্যবস্থাপককে জানায়। চা বাগান কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে কমলগঞ্জ থানার পুলিশ ঘটনাটি জেনে দুপুরে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: আরিফুর রহমান এর নেতৃত্বে¡ পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল থেকে লাশের সুরতহাল তৈরী লাশটি উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত মস্তকবিহিন নারীর বয়স আনুমানিক ২৫/২৬ বছর হবে। কমলগঞ্জ থানার এসআই ফরিদ উদ্দীন বলেন, লাশের পাশের উদ্ধারকৃত কিছু আলামত ও সুরতহালে ধারণা করা যায়, তাকে গণ ধর্ষণের পর গলা কেটে হত্যা করে ফেলে রাখা হয়। এস আই ফরিদ আরও জানান, ধলই চা বাগানে খোঁজ নিয়েও লাশের পরিচয় জানা যায়নি। এতে ধারণা করা যায় অন্য কোন স্থান থেকে ধরে এনে এ নারীকে ধর্ষনের পর এখানে ফেলে রাখা হয়েছে। ঘটনাস্থলে কনডম ও যৌন উত্তেজক ঔষধের লেভেল পাওয়া গেছে। কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: আরিফুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ময়না তদন্তের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে। এ ঘটনায় ধলই চা বাগানের শ্রমিকদের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •