কমলগঞ্জে একদিনে নতুন শনাক্ত ৬৩ জন

August 19, 2021, এই সংবাদটি ৭৬ বার পঠিত

প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ॥ প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে একদিনে নতুন করে শনাক্ত হয়েছে আরো ৬৩ জন। এনিয়ে উপজেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাড়াল ৬৬২ জনে। ১৯ আগষ্ট বৃহস্পতিবার দুপুরে এ তথ্য জানিয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এম. মাহবুবুল আলম ভূঁইয়া।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এম. মাহবুবুল আলম ভূঁইয়া জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে আসা রিপোর্টে ৬৩ জনের করোনা পজেটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে কমলগঞ্জ উপজেলায় মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাড়াল ৬৬২ জনে। উপজেলায় করোনায় এ পর্যন্ত মৃত্যুবরণ করেছে ৫ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৪৬১ জন। এছাড়াও উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন অন্ততপক্ষে ৫০ জন। নতুন আক্রান্ত ৬৩ জনকে তাদের আক্রান্তের বিষয়টি জানিয়ে আইসোলেশনে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।
এদিকে বুধবার মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে কমলগঞ্জ উপজেলার শাওলী সিনহা (৭৭) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (অরএমও) ডাঃ ফয়ছল জামান ১ জন নারীর মৃত্যু নিশ্চিত করেন।
কমলগঞ্জ উপজেলায় করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে টিকা দেয়া কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। এছাড়া করোনা টেষ্ট প্রতিদিন করা হচ্ছে। আগের চেয়ে মানুষের মাঝেও সচেতনতা বৃদ্ধি পেয়েছে।
সরেজমিন কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা গেছে, লাইন বেঁধে করোনার টিকা নিতে জনসাধারণ ভিড় জমিয়েছেন। কেউ রেজিষ্ট্রেশন করে কার্ড নিয়ে এসেছেন, আবার কেউ মোবাইলে মেসেজ পেয়ে এসেছেন। এতে করে দায়িত্ব¡রত স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নার্স ও সহকারীরা হিমশিম খাচ্ছেন।
কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এম. মাহবুবুল আলম ভূঁইয়া জানান, কমলগঞ্জ উপজেলায় বৃহস্পতিবার পর্যন্ত করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণে রেজিষ্ট্রেশন করেছেন প্রায় ৫৬ হাজার। এরমধ্যে ১ম ডোজ নিয়েছেন ২১ হাজার ৯৫৭ জন। ২য় ডোজ নিয়েছেন ৬ হাজার ২৭ জন। বাকি আছে টিকা দেয়া ৩৩ হাজার ৭৭৩ জনকে। গত ৭ আগষ্ট কমলগঞ্জ উপজেলায় ৯টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় গণটিকা ১ম ডোজ প্রদান করা হয় ।
কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা রোগীর জন্য ২০ টি বেড রয়েছে। এছাড়াও পর্যাপ্ত অক্সিজেন সিলিন্ডার ও ১টি অক্সিজেন কনসেন্টের রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •