কুলাউড়ায় দা দিয়ে কুপিয়ে মাদরাসা ছাত্র তুহিনকে হত্যা

October 20, 2021, এই সংবাদটি ৮৯ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার॥ কুলাউড়া থানা পুলিশের এক বিশেষ অভিযানে ক্লুলেস হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন করে প্রধান আসামি আয়ান বাউরি (২০) কে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
মঙ্গলবার রাতে পুলিশ ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহার করে শমশেরনগরের ডবলছড়া চা বাগান এলাকা থেকে তাকে আটক করে। আয়ান শমসেরনগরের ডবলছড়া চা বাগানের মৃত বসুক বাউরির ছেলে।
জানা যায়, গত ১১ অক্টোবর রাতে উপজেলার কর্মধা ইউনিয়নে আশরাফুল ইসলাম তুহিন (১৫) নামে এক মাদরাসা ছাত্র দুর্বৃত্তের দায়ের কূপে মারা যান। পরে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ তুহিনের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। লাশ উদ্ধারের পর ১২ অক্টোবর নিহত তুহিনের বাবা সজ্জাদ আলী বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
মামলার পরপরই ক্লুলেস মামলা উদঘাটনে মাঠে নামে পুলিশ। অবশেষে মঙ্গলবার ১৯ অক্টোবর রাতে কুলাউড়া থানার এসআই আব্দুর রহিম ও শাহ আলম সঙ্গীয় ফোর্সসহ পুলিশ ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহার করে শমশেরনগরের ডবলছড়া চা বাগান এলাকা থেকে আয়ান বাউরিকে গ্রেপ্তার করা হয়।
গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে কুলাউড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমিনুল ইসলাম জানান, টাকা ও মোবাইলের জন্য আয়ান দা দিয়ে কুপিয়ে মাদরাসা ছাত্র তুহিনকে হত্যা করে। ঘটনাস্থল থেকে দা উদ্ধার করা হয়।
আটকের পর ক্লুলেস হত্যা মামলার প্রধান আসামি আয়ান বাউরিকে বুধবার ২০ অক্টোবর দুপুরে মৌলভীবাজার কোর্টে সোপর্দ করা হয়েছে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •