কুশিয়ারা থেকে আবারও বালি উত্তোলন : গভীর রাতে জেলা প্রশাসনের অভিযান

August 14, 2021, এই সংবাদটি ১২৫ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার॥ রাজনগরে কুশিয়ারা নদীতে অবৈধ বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে আবারও অভিযান চালিয়েছে মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসন।
নদী থেকে বালু উত্তোলন হচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে ১২ আগষ্ট বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টায় জেলা প্রশাসকের নির্দেশনায় উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের কুশিয়ারা নদীর জাহিদপুর ও আব্দুল্লাহপুর এলাকায় অভিযান চালানো হয়। অভিযানে ছিলেন রাজনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রিয়াঙ্কা পাল ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) উর্মি রায়।
জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসনের কঠোর অবস্থান অব্যাহত রয়েছে। রাজনগর উপজেলার উত্তর পাস দিয়ে বয়ে যাওয়া কুশিয়ারা নদীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছেন মর্মে অভিযোগের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টায় রাজনগর থানা পুলিশের সহযোগিতায় কুশিয়ারা পাড়ে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযান চলাকালে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারী কাউকে পাওয়া যায়নি। সংশ্লিষ্ট আসামিদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলার প্রস্ততি চলছে।
এদিকে গত ১০ অক্টোবর উপজেলার কুশিয়ারা নদীর আব্দুল্লাহপুর এলাকায় বালু খেকো লিটন মিয়াকে বালু তুলার সময় তাৎক্ষনিক হাতেনাতে ধরে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করেন উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) উর্মি রায়। এর দুদিন যেতে না যেতেই ওই গ্রুপ একই যায়গায় বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে বালু উত্তোলন করছে এমন খবর পায় প্রশাসন। পরে গভীর রাতে সেখানে গিয়ে আর কাউকে পাওয়া যায়নি।
জাহিদপুর গ্রামের মাধব চক্রবর্তী বলেন, নদীতে মানুষের আনাগুনা না থাকলে বালুখেকোরা একত্রিত হয়। বিশেষ করে প্রতিদিন ভোর বেলা তারা ওই এলাকায় ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলন করে থাকে। তিনি আরও বলেন, প্রশাসন কিংবা সাংবাদিক আসার খবর পেলে তারা পাশের বালাগঞ্জ উপজেলার হামছাপুরে ড্রেজার সরিয়ে নিজেদের আড়াল করে।
এদিকে রাজনগর উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা প্রিয়াঙ্কা পাল শুক্রবার রাতে জানান, নদীতে অবৈধ পথে বালু উত্তোলন হচ্ছে এমন খবর পেয়ে আমরা সরেজিমে গেলে কাউকে পাইনি। তবে অভিযান অব্যাহত থাকবে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •