(ভিডিওসহ) ছাত্রলীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী : মাসলম্যান হয়ে নেতা হওয়া যায় না-এমপি নেছার আহমদ

January 4, 2021, এই সংবাদটি ১৯৫ বার পঠিত

সাইফুল্লাহ হাসান॥ ছাত্রলীগ হলো একটি ইন্ডাস্ট্রি। সেই ইন্ডাস্ট্রি থেকে ছাত্রলীগ বের হয়ে দেশের নেতৃত্ব দেয়। জাতীকে নেতৃত্ব দেয়। ছাত্রলীগ সেনার মানুষ সৃষ্টি করে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক একসম ছাত্রলীগ ছিলেন। আজকে আপনাদের অনুষ্ঠানে আসলে শংসয় হয়, ইজ্জতের ভয় হয়। সেখানে গিয়ে কি ইজ্জত রক্ষা করা যাবে। মৌলভীবাজারে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মৌলভীবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য নেছার আহমদ।
সোমবার ৪ ডিসেম্বর দুপুরে মৌলভীবাজার পৌর জনমিলন কেন্দ্রে জেলা ছাত্রলীগের আয়োজনে আলোচনা সভায় জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলমের পরিচালনায় ও সভাপতি আমীরুল হোসেন চৌধুরী আমীনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মিছবাহুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মোঃ ফজলুর রহমান প্রমুখ।

বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক মো: মসুদ আহমদ,যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা  আব্দুল মুহিদ টুটু,সাবেক ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রুহেল আহমদ,সাবেক ছাত্রলীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান আবু সুফিয়ান, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ রেজাউল করিম সুমন,সাবেক ছাত্রলীগের আহবায়ক মবশির আলী প্রমুখ।
জানা যায়, অনুষ্ঠান শুরুর আগে স্লোগান নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে কিছু হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে অতিথিদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।
বক্তব্যের সময় এমপি নেছার আহমদ সকল কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, দয়া করে ছাত্রলীগের অতিত ঐতিহ্যকে নষ্ট করবেন না। সে অধিকার আপনাদের নেই। আপনারা ছাত্র রাজনীতি করে দলের সুনাম কুড়াবেন, নিজের সুনাম কুড়াবেন, নিজে রাজনীতিতে প্রতিষ্ঠিত হবেন। দুর্নাম নিজেরও কুড়াবেন না, দলেরও না। মাসলম্যান হবেন না। লাটি হাতে নিবেন চেয়ার হাতে নিবেন দলের জন্য। ব্যক্তির জন্য লাটিয়াল হবেন না, দলের জন্য লাটিয়াল হবেন।
তিনি নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে আরও বলেন, ভালো হওয়ার চেষ্টা করেন। দলের কাজ করুন। একদিন আমার মতো এমপি হতে পারবে। এমপি দেশের কাজ করবে। নেতা এক জিনিস আর মাসলম্যান হওয়া আরেক জিনিস। মারামারির মতো কোনো ঘটনা ভবিষ্যতে ঘটলে আওয়ামী পরিবার আপনাদের প্রোগ্রামে আসবেন না বলেও হুশিয়ারী দেন তিনি।
এদিকে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পৌর মেয়র মোঃ ফজলুর রহমান বলেন, প্রতিহিংসা না করে প্রতিযোগিতা করুন। যার ভাগ্যে যা আছে তাই ঘটবে। প্রতিহিংসা বাদ দিয়ে সংগঠনের প্রতি খেয়াল করুন। নিজের কর্মের প্রতি মনযোগী হোন। আগে সংগঠনের ভালো কর্মী হওয়ার চেষ্টা করুন। কোনো ভাইয়ের নামে স্লোগান দিয়ে আর ফেসবুকে লিখে নেতা হতে পারবেন না। নেতা হতে হলে সৎ কর্মী হতে হবে, মেধাবী কর্মী হতে হবে। দেশ ও স্বাধীনতা সম্পর্কে জানতে হব।
পরে আলোচনা সভা শেষে অতিথিদেরকে সম্মাননা স্মারক তোলে দেন ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দরা।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •