জন্মগত জোড়া লাগানো জমজ শিশুদের উন্নত চিকিৎসায় ঢাকায় স্থানান্তর

May 10, 2021, এই সংবাদটি ২২৪ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার॥ জন্মগত ত্রুটি নিয়ে জন্মগ্রহনকারি শরীর জোড়া লাগানো জমজ শিশুদের উন্নত চিকিৎসার জন্য মৌলভীবাজার থেকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। হাত, পা, মুখ ও মাথা আলাদা হলেও জন্ম থেকে শিশু দুটির বুক থেকে পেট একত্রে জোড়া লাগানো। শিশু দুটিই কন্যা সন্তান। তাদের চিকিৎসায় সহায়তা চেয়েছে পরিবার।
উন্নত চিকিৎসার জন্য শরীর জোড়া লাগানো জমজ শিশুদের ৯ মে রোববার সন্ধ্যায় মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতাল থেকে ঢাকা শিশু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। প্রাইভেট অ্যাম্বুলেন্স করে জমজ শিশুদের ঢাকায় নিয়ে যায় তাদের পরিবার।
শিশুদের অতি দরিদ্র পিতা জুয়েল আহমদ বলেন, স্থানীয় চিকিৎসকরা জানিয়েছেন উন্নত চিকিৎসার মাধ্যমে শিশু দুটি আলাদা করা সম্ভব। যা স্থানীয় হাসপাতালে সম্ভব নয়। উন্নত চিকিৎসার জন্য বড় অঙ্কের টাকা ব্যয় হবে। নিজের স্বল্প আয় দিয়ে ব্যয় বহন করা কোনো অবস্থাতেই সম্ভব নয়। শরীর জোড়া লাগানো জমজ কন্যা শিশুদের কথা শুনে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া এসে দেখে গেছেন। আর্থিক সহায়তা ৫০ হাজার টাকা করেছেন। চিকিৎসকদের পরার্মশে উন্নত চিকিৎসার জন্য মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতাল থেকে ঢাকায় শিশু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
৫ মে রাতে মৌলভীবাজার একটি বেসরকারি হাসপাতালে গাইনি চিকিৎসক ডা. ফারজানা হক পর্ণা ও অ্যানেসথেসিষ্ট ডা. বি এস এম এরশাদের তত্ত্বাবধানে সিজারের মাধ্যমে শরীর জোড়া লাগানো দুই কন্যা শিশুর জন্ম হয়। জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার সিঙ্গরাউলি গ্রামের জুয়েল মিয়া ও তাকলিমা দম্পতির পরিবারে জন্ম নেয় এ জমজ কন্যা শিশু। জুয়েল আহমদ পেশায় একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। পরে ৮ মে জান্নাত প্রাইভেট হাসপাতাল থেকে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতালে নেয়া হয়েছিল।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •