জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের কমলগঞ্জে বাড়িতে গিয়ে মারধোর, ভাঙচোর ও অগ্নিসংযোগ; আহত-২

November 26, 2020, এই সংবাদটি ২৬৫ বার পঠিত

প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ॥ জমি সংক্রান্ত পূর্ব বিরোধের জের ধরে বাড়িতে গিয়ে গাছপালা কেটে মারধোর করে ঘরে ভাঙচোর, মোটরসাইকেল ছিনতাই ও অগ্নিসংযোগ করার অভিযোগ উঠেছে। হামলায় মহিলাসহ ২ জন আহত হয়েছেন। এঘটনায় বাড়িছাড়া রয়েছে পরিবার। বুধবার ২৫ নভেম্বর সকাল সাড়ে ৭ টায় মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার পতনঊষার ইউনিয়নের বৈদ্যনাথপুর গ্রামে গিয়াসউদ্দীনের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় কমলগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

নির্যাতিত গিয়াস উদ্দীন অভিযোগ করে বলেন, জমি সংক্রান্ত পূর্ব বিরোধের জের ধরে বৈদ্যনাথপুর গ্রামের শামসুদ্দীন, শাহাবুদ্দীন, মোশাহিদ মিয়া, জামাল মিয়াসহ সংঘবদ্ধ দল আমার বাড়ির গাছগাছালি কেটে ফেলে। এসময়ে তাদের বাঁধা দিলে ঘরের ভেতরে প্রবেশ করে হামলা, মারধোর ও আমার নিজের ব্যবহৃত মোটর সাইকেলসহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুটপাট করে। যাওয়ার সময় তারা আমার বসতঘরে অগ্নিসংযোগও করে। তাদের হামলায় আমার কন্যা রোকসানা আক্তার (৩৪) ও প্রতিবেশী গনি মিয়া (৪০) আহত হন। আহত রোকসানাকে কমলগঞ্জ হাসপাতাল থেকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। তিনি আরও বলেন, হামলাকারীরা প্রভাবশালী থাকায় প্রকাশ্যে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ক্ষতি সাধিত করেছে এবং মেরে ফেলারও হুমকি দিচ্ছে। তাদের ভয়ে আমরা এখন আতঙ্কে বাড়িছাড়া রয়েছি। এঘটনায় গিয়াস উদ্দীন বাদি হয়ে ৪ জনকে আসামী করে অজ্ঞাতনামাসহ বুধবার রাতে কমলগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

সিরাজুন বেগমসহ স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, প্রতিপক্ষের লোকজন মিলে গাছকাটা, হামলা, মারধোর করে গিয়াস উদ্দীনের পরিবারকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে। স্থানীয় ইউপি সদস্য সাজিদ আলী এমন ঘটনা শুনেছেন বলে জানান।

অভিযোগ বিষয়ে শামসুদ্দীন বলেন, ঘটনার সময়ে আমি বাড়িতে ছিলাম না এবং এসব কিছুই জানি না। তবে এই বাড়িতে কিছুদিন থাকার জন্য আমার মায়ের জমিতে গিয়াস উদ্দীন ও তার পরিবারকে আশ্রয় দেয়া হয়।

অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মো. আনজির বলেন, দু’পক্ষের মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে। অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •