জেলা পরিষদ নির্বাচন-২০১৬ কমলগঞ্জে সদস্য পদে ২ কলেজ অধ্যক্ষ ও মহিলা সদস্য পদে এক প্রধান শিক্ষিকা নির্বাচিত

December 28, 2016, এই সংবাদটি ১৪০ বার পঠিত

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি॥ ২৮ ডিসেম্বর বুধবার অনুষ্ঠিত জেলা পরিষদ নির্বাচনে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার ১৪ ও ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে সদস্য পদে দুই কলেজ অধ্যক্ষ নির্বাচিত হয়েছেন। কমলগঞ্জ উপজেলার ১৪ ও ১৫ নং ওয়ার্ড ও শ্রীমঙ্গল উপজেলার ১৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী আসনে এক উচ্চ বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষিকা সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। জেলার সাত উপজেলা নিয়ে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে সাবেক প্রশাসক, বীর মুক্তিযোদ্ধা আজিজুর রহমান চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। সাধারন ভোটারদের মাঝে তেমন উৎসাহ না থাকলেও জনপ্রতিনিধিদের মাঝে সৃষ্ট ব্যাপক উৎসাহ আর উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে কমলগঞ্জের দুইটি কেন্দ্রে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়।
মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ নির্বাচনে কমলগঞ্জ উপজেলার ৪টি ইউনিয়ন ১টি পৌরসভা (কমলগঞ্জ পৌরসভা, কমলগঞ্জ সদর, ইসলামপুর, মাধবপুর, আদমপুর ইউনিয়ন) নিয়ে গঠিত ১৪নং ওয়ার্ডে মোট ভোট সংখ্যা ৬৫। এর মধ্যে শতভাগ ভোট গ্রহন হয়েছে। এই ওয়ার্ডে আওয়ামীলীগ সমর্থিত কমলগঞ্জ আব্দুল গফুর চৌধুরী মহিলা কলেজ এর অধ্যক্ষ মো. হেলাল উদ্দীন (তালা প্রতিক) ৩৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দি হিসাবে বিএনপি সমর্থিত জেলা ছাত্রদলের যুগ্ন আহবায়ক গোলাম রব্বানী তৈমুর (সিএনজি অটোরিক্সা প্রতীক) ২৫টি ভোট পেয়েছেন। অপরদিকে শমশেরনগর, পতনঊষার, রহিমপুর, মুন্সিবাজার, আলীনগর ইউনিয়ন ও কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নিয়ে গঠিত ১৫নং ওয়ার্ডে ভোট সংখ্যা ৬৮। এই ওয়ার্ডে শমশেরনগর সুজা মেমোরিয়াল কলেজের অধ্যক্ষ মুর্শেদুর রহমান (তালা প্রতিক) ৩৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দি মুহিবুর রহমান জয়নাল (সিএনজি অটোরিক্সা) ১৯ ভোট পেয়েছেন।
সংরক্ষিত আসনে (১৩, ১৪ ও ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে) আদমপুর ইউনিয়নের বদরুন নাহার ভুঁইয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা তফাদার রিজুয়ানা ইয়াসমিন (বই) প্রতীক নিয়ে ১০২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দি মুন্না দেবরায় (দোয়াত কলম) প্রতিক নিয়ে ৪০ ভোট পেয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •