পূজার আগে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত মজুরীর এরিয়ার প্রদানের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছে চা শ্রমিক ইউনিয়ন

September 25, 2022,

বিকুল চক্রবর্তী॥ মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গস্থ বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে রোববার ২৫ সেপ্টেম্বর দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় কমিটির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নিপেন পাল।
লিখিত বক্তব্যে নিপেন পাল বলেন, প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে চা শ্রমিকদের ১৭০ টাকা মজুরী নির্ধারণ করা হয়। বাংলাদেশ চা সংসদ ও বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়নের দ্বি-বার্ষিক দ্বি-পাক্ষিক শ্রম চুক্তির বিগত ধারা অনুযায়ী গত ০১-০১-২০২১ খ্রি: হতে ২৭-০৮-২০২২খ্রি: পর্যন্ত বর্ধিত হারে বকেয়া মজুরী মালিক পক্ষ পরিশোধ করার কথা থাকলেও মালিকরা সেটা করছেন না। এছাড়াও মালিক পক্ষ চা বাগানগুলোকে শ্রেণী/ক্যাটাগরী ভেদে চা শ্রমিকদের সম মজুরি হতে বঞ্চিত রাখছেন, স্থায়ী ও অস্থায়ী শ্রমিকদের সমপরিমাণ মজুরির চুক্তি থাকলেও বেশিরভাগ চা বাগানের মালিক পক্ষ অস্থায়ী শ্রমিকদের জন্য নিজেরা মজুরী নির্ধারণ করেন এবং প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা মোতাবেক অন্যান্য সুবিধাদী বৃদ্ধির কথা থাকলেও সে বিষয়েও কোন পদক্ষেপ নেই, যার ফলে চা শ্রমিকদের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে।
এসময় চা শ্রমিক ইউনিয়নের নেতা পরেশ কালিন্দি বলেন, আসন্ন দুর্গাউৎসব উদযাপনের পূর্বে চা শ্রমিকদের বকেয়া মজুরি প্রাপ্তির জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য বাংলাদেশীয় চা সংসদের নেতাদের দৃষ্টি আর্কশন করেন। তিনি বলেন, বকেয়া মজুরীসহ অন্যান্য সুযোগ সুবিধা অপরিশোধিত থাকলে পুনরায় শ্রম অসন্তোষ দেখা দিতে পারে।
এসময় বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মাখন লাল কর্মকার, সহ-সভাপতি পংকজ কন্দ, কার্যকরী সভাপতি বৈশিষ্ট তাঁতি, সাংগঠনিক সম্পাদক বিজয় হাজরা, অর্থ সম্পাদক পরেশ কালিন্দি, মনু-ধলাই ভ্যালির সভাপতি ধনা বাউরি, সাধারণ সম্পাদক নির্মল পাইনকা, বালিশিরা ভ্যালির সহ-সভাপতি সবিতা গোয়ালাসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •