ফলোআপ- কুলাউড়ায় নিখোঁজ শিশুর লাশ উদ্ধার মায়ের মামলায় সৎমা আটক

June 4, 2016, এই সংবাদটি ১৪৯ বার পঠিত

কুলাউড়া অফিস॥ কুলাউড়ায় শিশু জাহিদ হোসেনকে হত্যার অভিযোগে তার মা রাহেলা বেগম হত্যা মামলা করেছেন। ২ জুন বৃহস্পতিবার তিনি কুলাউড়া থানায় মামলা করেন। এই ঘটনায় জাহিদের সৎমা বানেছা বেগমকে আটক করেছে পুলিশ।
সাড়ে ছয় বছর বয়সী জাহিদ কুলাউড়া পৌর শহরের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ লস্করপুর এলাকার বাসিন্দা ও কুলাউড়া ডিগ্রি কলেজের দপ্তরি আছকির আলীর ছেলে। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আছকির আলীর প্রথম স্ত্রী বানেছা বেগম। সাত-আট বছর আগে রাহেলা বেগম নামের আরেকজনকে বিয়ে করেন আছকির আলী। জাহিদ দ্বিতীয় স্ত্রীর ছেলে। তিন বছর আগে আছকির আলীর সঙ্গে দ্বিতীয় স্ত্রীর বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে। এরপর থেকে জাহিদ তার সৎমায়ের কাছে থাকত। মঙ্গলবার জাহিদ নিখোঁজ হয়। পরদিন বুধবার সকালে উত্তর লস্করপুর এলাকায় গোগালিছড়া নদীতে জাহিদের লাশের সন্ধান পাওয়া যায়। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ওই দিন বিকেলে পুলিশ জাহিদের বাবা অ আছকির আলী ও তাঁর দ্বিতীয় স্ত্রী বানেছাকে থানায় নিয়ে যায়।
মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, বানেছা প্রায়ই তুচ্ছ কারণে জাহিদের ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালাতেন। এর জের ধরেই তিনি (বানেছা) জাহিদকে হত্যা করে নদীতে তার লাশ ফেলে দিয়েছেন। তবে বানেছা জাহিদকে হত্যার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।
কুলাউড়া থানার এসআই দিদার উল্লাহ বলেন, জাহিদের মায়ের করা মামলায় বানেছাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। তাঁকে (বানেছা) ৩জুন শুক্রবার মৌলভীবাজার আদালতে পাঠানো হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •