বন্যার্তদের পাশে মৌলভীবাজার জেলা পুলিশ

June 20, 2022,

স্টাফ রিপোর্টার॥ ভারিবৃষ্টি ও উজানের ঢলে সৃষ্ট বন্যায় বিপর্যস্ত সিলেট বিভাগের বিভিন্ন জেলা উপজেলা। সাম্প্রতিক বন্যায় মৌলভীবাজার জেলার ৫টি উপজেলা প্লাবিত হয়েছে। বড়লেখা, কুলাউড়া, রাজনগর, সদর ও জুড়ী উপজেলার প্রায় ৭০ হাজার মানুষ বন্যা কবলিত হয়েছে। এসব উপজেলায় নারী-শিশুসহ প্রায় ৫ হাজার মানুষ ঘরবাড়ি ছেড়ে বিভিন্ন আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছে।
অনেক মানুষ পানিবন্দী হয়ে আটকা পড়ায় তাদের উদ্ধার করে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিতে কাজ করছে জেলা পুলিশ মৌলভীবাজারের কুইক রেসপন্স টিম।
মৌলভীবাজার জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া নেতৃত্বে আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে ইতোমধ্যে ২৫০০ প্যাকেট শুকনো খাবার ও ২ মেট্রিকটন চাল বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়াও পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট, স্যালাইন ও প্রয়োজনীয় ঔষধ সরবরাহ করা হয়েছে। থানা পুলিশের পক্ষ থেকে এসবের পাশাপাশি রান্না করা খাবারও সরবরাহ করা হচ্ছে।
বন্যা কবলিত উপজেলাগুলোর অফিসার ইনচার্জগণের নেতৃত্বে থানা পুলিশ সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে সর্বদা তৎপর রয়েছেন। প্রাকৃতিক দূর্যোগের সুযোগে কেউ যাতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি না করতে পারে সেদিকেও লক্ষ্য রাখা হচ্ছে। বন্যা ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের সহায়তা ও সার্বক্ষণিক খোঁজখবর নিতে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে “বন্যা মনিটরিং সেল ” চালু করা হয়েছে। বন্যা মনিটরিং সেল এর হটলাইনে ফোন করে সহায়তা চাইলে দ্রুত উদ্ধারকারী দল পাঠানো ব্যবস্থা করা হচ্ছে, দেয়া হচ্ছে প্রয়োজনীয় সাহায্য। বন্যা ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের সহায়তা ও সার্বক্ষণিক খোঁজখবর নিতে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে “বন্যা মনিটরিং সেল” চালু করা হয়েছে। বন্যা মনিটরিং সেল এর হটলাইন ০১৩২০১১৯৭৬৪ এ ফোন করে সহায়তা চাইলে দ্রুত উদ্ধারকারী দল পাঠানো ব্যবস্থা করা হচ্ছে, দেয়া হচ্ছে প্রয়োজনীয় সাহায্য।
বর্তমান বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে জেলার পুলিশ সুপার বলেন,বন্যা পরিস্থিতির দিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখা হচ্ছে। যেকোন পরিস্থিতি মোকাবেলায় সংশ্লিষ্টদের সাথে প্রয়োজনীয় সমন্বয় রাখা হচ্ছে। মৌলভীবাজার জেলার বন্যা কবলিত মানুষের পাশে আছে জেলা পুলিশ। যেকোনো প্রকার সহায়তার জন্য আমরা প্রস্তুত আছি।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •