বিদেশে বসে যারা ফেসবুক ও ইউটিউভে ক্রাইম চালাচ্ছে আইন অনুযায়ী তাঁদের বিচার করা হবে-মৌলভীবাজারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

October 9, 2021, এই সংবাদটি ৭৬ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি বলেছেন, বিদেশে বসে যারা সাইবার ক্রাইম চালাচ্ছে। এগুলো আমাদের দৃষ্টিগোচর হচ্ছে। তাঁরা যদি আমাদের দেশের সিটিজেন হয়ে থাকে তাহলে আমাদের আইন অনুযায়ী তাদের বিচার অবশ্যই করা হবে।
তিনি আরও বলেন, যারা বিদেশী সিটিজেন বা বিদেশে অবস্থান করে দেশের ভাবমুর্তি নষ্ট করছেন, সেই জন্য আমরা ব্যবস্থা করছি। সেই দেশকে আমরা জানাচ্ছি। সামাজিক যোগাযোগ প্রতিষ্ঠান ফেসবুক ও ইউটিউভ এগুলোর সাথে যোগাযোগ করছি। তারা যেন সে গুলোকে কন্ট্রোল করেন সে জন্য আবেদন রাখছি। আমাদের প্রচেষ্ঠা অভ্যাহত রয়েছে। যারাই এ কর্মগুলো করবেন আমাদের আইন অনুয়ায়ী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
শনিবার ৯ অক্টোবর দুপুরে মৌলভীবাজার জেলা পুলিশ আয়োজিত জুড়ী থানার নবনির্মিত ভবনের ফলক উম্মোচন ও থানা ভবন পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।
পরে তিনি থানা প্রাঙ্গনে এক সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য আরও বলেন, আধুনিক দেশ গঠনে পুলিশের ভুমিকা প্রশংসনীয়। দেশকে স্বাধীন করার জন্য মুক্তিযোদ্ধাদের পাশাপাশি সেনা বাহিনীসহ সকল বাহিনী যে যুদ্ধ করে গেছেন তন্মধ্যে পুলিশ বাহিনী এ ব্যাপারে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন। স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান রাজারবাগ পুলিশ কেন্দ্র থেকে পুলিশ সদস্যদের দেশ গঠনের আহবান জানিয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধু এ সময় তাদের উদ্দেশ্যে ভাষন দিয়ে বলেছিলেন, তোমরা যদি দেশের উন্নয়নে ঝাঁপিয়ে পড়, তাহলে আমি নিজেকে গর্ববোধ করবো। বাংলাদেশ পুলিশ তার ভাষনে উদ্বুদ্ধ হয়ে বঙ্গবন্ধুর কথাগুলো অক্ষরে অক্ষরে পালন করেছিলেন।
মন্ত্রী আরও বলেন, দেশ স্বাধীন হওয়ার পর যত সরকার দেশ চালিয়েছেন কেউই দেশের উন্নয়ন করতে পারেননি। তবে বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একান্ত প্রচেষ্টায় পুলিশ বাহিনী সন্ত্রাস দমন, মাদক নিয়ন্ত্রন ও জঙ্গিবাদ দমনে বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে এগিয়ে চলছে।
পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন আহমদ এমপি, মৌলভীবাজার-৩ আসনের এমপি ও জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি নেছার আহমদ, সংরক্ষিত নারী আসসের সংসদ সদস্য সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দিন, বাংলাদেশ পুলিশ সিলেট রেঞ্জ এর ডিআইজি মফিজ উদ্দিন আহমেদ, জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মিছবাহুর রহমান, জুড়ী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা বদরুল হোসেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, সিলেট এসএমপি পুলিশ কমিশনার মোঃ নিশারুল আরিফ, মৌলভীবাজার সদর পৌরসভার মেয়র মোঃ ফজলুর রহমান, জুড়ী উপজেলা চেয়ারম্যন মুক্তিযোদ্ধা এম এ মোঈদ ফারুক, জুড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোনিয়া সুলতানা। আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক উপকমিটির সদস্য এস এম জাকির হোসাইন, বড়লেখা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সুয়েব আহমদ, বড়লেখা পৌর চেয়ারম্যান কামরান আহমদ চৌধুরী, জুড়ী উপজেলা আওয়ামীগ সাধারণ সম্পাদক মাসুক আহমদ সহ অন্যন্যরা।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পরিবেশমন্ত্রী বলেন, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় জুড়ীর লাঠিটিলায় বঙ্গবন্ধু সাফারিপার্ক নির্মাণ করার উদ্যোগ নিয়েছে ফলে এখানে অধিকহারে দেশ-বিদেশের পর্যটকদের আগমন ঘটবে। একটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সংবলিত থানাভবন নির্মাণের ফলে জুড়ী থানার পুলিশি কার্যক্রম পরিচালনা করা সহজ হবে, ফলে জুড়ী এলাকার জনগণ ও আগত দেশি-বিদেশি পর্যটকেরা আরও উন্নত ও আধুনিক সেবা পাবে। তিনি বলেন সরকার জেলার সকল থানা ভবন আধুনিকায়ন করবে।
গণপূর্ত বিভাগের অর্থায়নে ৭ কোটি ৩১ লক্ষ ৪৪ হাজার ৩শত ৫০ টাকা ব্যয়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করেছে। ৪ তলা ভবনটিতে রয়েছে অত্যাধুনিক সুযোগ-সুবিধা। ভবনের সামনে রয়েছে সবুজ মাঠ ও সুদৃশ্য ফুলের বাগান। থানা আঙিনায় প্রবেশের মুখেই বামপাশে রয়েছে একটি নয়নাভিরাম ছোট পুকুর। থানার সেবা প্রত্যাশীগণ থানা আঙ্গিনা ও ভবনে প্রবেশের পর এর আয়োজন দেখে মুগ্ধ হবেন। আধুনিক এ ভবন নির্মাণের ফলে উন্নত ও কাঙ্খিত পুলিশি সেবা প্রদান সহজ হবে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •