বড়লেখায় একুশের প্রথম প্রহরে ভাষাশহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা

February 21, 2021, এই সংবাদটি ৪৯ বার পঠিত

বড়লেখা প্রতিনিধি॥ মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রথম প্রহরে মৌলভীবাজারের বড়লেখায় ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানাতে বড়লেখা বালিকা উচ্চবিদ্যালয় শহীদ মিনারে ঢল নামে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের।
দিবসের প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে ভাষাশহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বড়লেখা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সোয়েব আহমদ ও বড়লেখা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. শামীম আল ইমরান।
এরপর সহকারী কমিশনার (ভূমি) নুসরাত লায়লা নীরা, বড়লেখা জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালত ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের পক্ষে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।
পরে বড়লেখা উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাদের নিয়ে দলের পক্ষে আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম সুন্দর, বড়লেখা পৌরসভার মেয়র আবুল ইমাম মো. কামরান চৌধুরী ও কাউন্সিলর, বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।
এরপর একে একে বড়লেখা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, বড়লেখা প্রেসক্লাব, বাংলাদেশ স্কাউটস বড়লেখা উপজেলা, সরকারি কর্মচারী সংঘ বড়লেখা, বন বিভাগ বড়লেখা কার্যালয়, বড়লেখা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, পাথারিয়া ছোটলিখা সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, ডিপ্লোমা কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন ভাষাশহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর এক মিনিট নীরবে দাঁড়িয়ে থেকে ভাষা আন্দোলনের শহীদদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানানো হয়।
নীরবতা পালন শেষে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বড়লেখা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. শামীম আল ইমরান।
বড়লেখা উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ তাজ উদ্দিন ও বড়লেখা উপজেলা স্কাউটসের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের যৌথ সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন বড়লেখা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সোয়েব আহমদ, সহকারী কমিশনার (ভূমি) নুসরাত লায়লা নীরা, বড়লেখা উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম সুন্দর, বড়লেখা পৌরসভার মেয়র আবুল ইমাম মো. কামরান চৌধুরী প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •