বড়লেখায় এসি ল্যান্ডের বাধা-নিষেধ অমান্য করে কোটি টাকার সরকারি ভুমিতে স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগ

November 21, 2021, এই সংবাদটি ৪৬ বার পঠিত

আব্দুর রব বড়লেখা উপজেলার শাহবাজপুর বাজারে কোটি টাকার সরকারি ভুমিতে স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে। এব্যাপারে উক্ত ভুমির মৌরসী স্বত্ত্ববান দাবীদার আব্দুল জব্বার আদালতে মামলাধীন বিরোধীয় ভুমির স্থাপনা নির্মাণ বন্ধের দাবীতে সহকারি কমিশনার (ভুমি) বরাবরে লিখিত আবেদন করেছেন। এসিল্যান্ডের বাধা-নিষেধ অমান্য করে প্রতিপক্ষ নির্মাণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

অভিযোগ ও সরেজমিনে জানা গেছে, উপজেলার পূর্ব-দৌলতপুর মৌজার এক নম্বর খতিয়ানের এসএ ৮৭৯ ও ৮৭৮ নম্বর দাগের সর্বমোট ৪৮ শতাংশ ভুমি সরকারের সড়ক ও জনপথ বিভাগের রেকর্ডিয় ভুমি। যার বাজার মূল্য কোটি টাকার ওপরে। উক্ত ভুমি মৌরসী দাবী করে আব্দুল জব্বার মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক, বড়লেখা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ ২৫জনকে প্রতিপক্ষ করে মৌলভীবাজার সহকারি জজ আদালতে স্বত্ত্ব মামলা (মোকদ্দমা নং-৩০৫/২০২১ইং) দায়ের করেন, যা চলমান রয়েছে। এরই মধ্যে উক্ত বিরোধীয় সরকারি ভুমিতে ১৩ নভেম্বর শাহবাজপুর হাইস্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ মার্কেট নির্মাণের কাজ শুরু করেন। খবর পেয়ে সড়ক ও জনপথ বিভাগের কর্মকর্তা ও সহকারি কমিশনার (ভুমি) নির্মাণকারীদের স্থাপনা নির্মাণে বাধা-নিষেধ করেন। কিন্তু প্রশাসনের বাধা-নিষেধ উপেক্ষা করে শাহবাজপুর স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মো. আব্দুল বাছিত সরকারি ভুমিতে মার্কেট নির্মাণের কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।

সহকারি কমিশনার (ভুমি) মো. জাহাঙ্গীর হোসাইন জানান, অভিযোগ পেয়ে স্থানীয় সহকারি ভুমি কর্মকর্তাকে দিয়ে অধ্যক্ষকে নির্মাণ কাজ বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়। এ সংক্রান্ত কোনো কাগজপত্র থাকলে উপজেলা ভুমি অফিসে তা নিয়ে আসার জন্যও বলা হয়। কিন্তু তিনি কোনো যোগাযোগ করেননি। নির্মাণ কাজ বন্ধ না করলে সরেজমিনে পরিদর্শণ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন।

অধ্যক্ষ মো. আব্দুল বাছিত জানান, তিনি সরকারি কোনো ভুমিতে স্থাপনা নির্মাণ করছেন না। স্কুল এন্ড কলেজের নিজস্ব ভুমিতেই নির্মাণ কাজ করছেন। যা পরিচালনা কমিটির রেজুলেশনের নির্দেশনা মোতাবেক চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •