বড়লেখায় কয়েক কোটি টাকার জমির দখল নিতে ত্রিমুখী লড়াই

May 7, 2016, এই সংবাদটি ১৭৬ বার পঠিত

বিশেষ প্রতিনিধি॥ কুলাউড়া-শাহবাজপুর পরিত্যক্ত রেলওয়ের বড়লেখা স্টেশন সংলগ্ন কৃষি লিজের ব্যাপক ভুমিতে বিধিবহির্ভূতভাবে গড়ে তোলা হয়েছে বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান। লিজ চুক্তি ভঙ্গ করে এসব ভুমি কেনা-বেচায় বাড়ছে দ্বন্দ্ব-সংঘাত। সুত্রমতে রেলওয়ের কৃষি ভুমি লিজ বিধিমালা (৫/২/৪) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী স্টেশন ইয়ার্ডের ভিতরে ইতিপূর্বে বরাদ্ধকৃত সকল কৃষি লাইসেন্স বাতিল ঘোষিত হলেও এক পক্ষ আরেক পক্ষকে মামলা মোকদ্দমায় জড়িয়ে সরকারী মূল্যবান ভুমি নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিতে ত্রিমুখী লড়াই শুরু হয়েছে। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যেও চরম ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজ করছে।
জানা গেছে, বড়লেখা স্টেশন সংলগ্ন রেলওয়ের জমি বিভিন্ন ব্যক্তি কৃষি লিজ নিয়ে সেখানে বাড়িঘর তৈরী করে শুরু করেন স্থায়ীভাবে বসবাস। লিজ চুক্তির চরম লঙ্গন ঘটিয়ে অনেকেই বাণিজ্যিক দোকানপাঠ নির্মাণ করে ভাড়া দিয়েছেন। প্রভাবশালী ভুমিখেকো চক্র বিনা লিজে রেলওয়ের অনেক ভুমি জবর দখল করে বিভিন্ন স্থাপনা তৈরী ও বিক্রি করলেও সেদিকে রেলওয়ের যেন কোন মাথা ব্যথা নেই। চুক্তি ভঙ্গ করে কৃষি লিজকৃত ভূমি একজনের সাথে বায়নামা করে অধিক দাম পেয়ে অন্যের কাছে বিক্রি নিয়ে দাঙ্গা-হাঙ্গামা ও মামলা মোকদ্দমার ঘটনা ঘটছে। বড়লেখা রেল স্টেশনের পশ্চিম উত্তর পার্শে নিজের বাড়ি সংলগ্ন রেলওয়ের ৩৩২ নং দাগে ৫১ শতাংশ কৃষি জমি ভোগাধিকার করছিলেন জনৈক এবাদুর রহমান। এ ভুমি সাবেক মপল শিক্ষক কৃষি লিজ নিয়েছেন জেনে এবাদুর রহমান দাম নির্ধারন করে কিছু টাকা অগ্রিম প্রদান করেন। কিন্তু নারীশিক্ষা একাডেমি ডিগ্রী কলেজের উপাধ্যক্ষ হেলাল উদ্দিন ও স্কুল শিক্ষক জাহিদ আহমদ বাণিজ্যিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ার লক্ষ্যে এ শিক্ষকের নিকট থেকে কৃষি লিজের ভুমি ৮ লাখ টাকায় ক্রয় করেও দখল নিতে না পেরে মিথ্যা ঘর পুড়ানো মামলায় পৌর আ’লীগের সভাপতি আব্দুল মালিক জুনুর ভাইকে জড়ানোর অভিযোগ উঠে। এরপর রেলওয়ের মূল্যবান এ ভুমি নিয়ন্ত্রনে নিতে শুরু হয় ত্রিমূখি লড়াই। উক্ত ভুমি কৃষি লিজ পেতে মৌলভীবাজার সহকারী জজ আদালতে দখলি মামলা করেন ভুমির দখলে থাকা এবাদুর রহমান। হস্তান্তর অযোগ্য ভুমিতে বাণিজ্যিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়তে দৌড়ঝাপ দিচ্ছেন দুই শিক্ষক আর ছোট ভাইকে মিথ্যা মামলায় আসামী করায় এক আ’লীগ নেতা।
এ ব্যাপারে রেলওয়ের সার্ভেয়ার আমিন উদ্দিন জানান, কৃষি লিজের ভুমি হস্তান্তর অযোগ্য। বাড়িঘর ও দোকানপাঠ নির্মাণ সম্পুর্ণ নিয়ম বহির্ভূত।
নারী শিক্ষা একাডেমি ডিগ্রী কলেজের উপাধ্যক্ষ একেএম হেলাল উদ্দিন জানান তিনি আবদুল হান্নানের নিকট থেকে রেলের ভুমি ক্রয় করেননি। তবে এ ভুমির লিজ বাতিল করে রেল বিভাগ থেকে বন্দোবস্ত নেয়ার চেষ্টা চালাচ্ছেন।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •