বড়লেখায় ছিদ্দেক আলী হাইস্কুলের দুই গ্রুপ ছাত্রের সংঘর্ষে আহত ১০ অফিস কক্ষে বহিরাগতদের হামলা : ব্যাপক ভাংচুর

September 6, 2016,

আব্দুর রব॥ বড়লেখা উপজেলার ছিদ্দেক আলী উচ্চ বিদ্যালয়ে দুই গ্রুপ ছাত্রের সংঘর্ষে ও বহিরাগতের হামলায় উভয় পক্ষের ১০ ছাত্র আহত হয়েছে।
৬ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার দুপুর দেড়টায় স্কুল ক্যাম্পাসে এ ঘটনা ঘটলে কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষনিক স্কুল ছুটি ঘোষনা করেন। আহতদের ৫ জনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে বিকেলে পাপলু আহমদ নামে নবম শ্রেণীর এক ছাত্রকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শী সাধারন ছাত্র, আহত ছাত্র ও হাসপাতাল সুত্রে জানা গেছে, ছিদ্দেক আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম ও দশম শ্রেণীর কয়েকজন ছাত্রের মধ্যে মঙ্গলবার বিরতির সময় মারামারির ঘটনা ঘটে। এতে দশম শ্রেণীর ইমন আহমদ, আফজল আহমদ ও নবম শ্রেণীর মাহফুজ আহমদ আহত হয়। তাদের অভিযোগ নবম শ্রেণীর পাপুল আহমদ ও আবিদ আহমদ চাকু দিয়ে কুপিয়ে তাদের আহত করেছে। এদিকে পাপুল আহমদ ও আবিদ আহমদের অভিযোগ বহিরাগত সন্ত্রাসী জসিম, সায়ফুর, সাহেদ, সাকির, ফরহাদ, আফজল ও শুভ স্কুলে ঢুকে বেধড়ক পিটিয়ে তাদেরকে আহত করেছে। এসময় বহিরাগতরা অফিস কক্ষে হামলা চালিয়ে দরজা-জানালাসহ আসবাবপত্র ভাংচুর করেছে। সংঘর্ষ ও মারামারির ঘটনায় স্কুল ক্যাম্পাসে উদ্বেগ-আতংকের সৃষ্টি হলে বেলা ২টায় কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষণির স্কুল ছুটি ঘোষণা করেন।
প্রধান শিক্ষক আব্দুল জলিল দুই গ্রুপ ছাত্রের সংঘর্ষের সত্যতা স্বীকার করে জানান, আহতদের ৫ জনকে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ১ জনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় চিকিৎসকরা তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালে স্থানান্তর করেন।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •