মাধবকুণ্ড ইকোপার্ক এলাকায় শজারু হত্যা ঘটনাস্থলেই ভ্রাম্যমাণ আদালত, ২ জনের জেল, ৭ জনের জরিমানা

November 15, 2020, এই সংবাদটি ১১১ বার পঠিত

আব্দুর রব॥ মাধবকুণ্ড ইকোপার্ক থেকে বিলুপ্ত প্রজাতির এশটি শজারু হত্যার অপরাধে দুই শিকারীকে এক মাস করে কারাদণ্ড ও হত্যায় সহায়তার অপরাধে অপর ৭ শিকারীকে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ১৪ নভেম্বর শনিবার রাত ৯’টায় মাধবকুণ্ড ইকোপার্কের বাজারিছড়া জঙ্গলে (ঘটনাস্থল) ইউএনও মো. শামীম আল ইমরান আদালত পরিচালনা করেন।
জানা গেছে, শনিবার সন্ধ্যায় মাধবকুণ্ড ইকোপার্ক এলাকায় একটি শজারু হত্যার অপরাধে ৯ শিকারীকে আটক করে স্থানীয় ফরেস্ট গার্ডরা। খবর পেয়ে ইউএনও ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. শামীম আল ইমরান বনবিভাগের রেঞ্জ কর্মকর্তা শেখর রঞ্জন দাস, বড়লেখা সদর ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজ উদ্দিন ও থানার এসআই হযরত আলীকে নিয়ে ছুটে যান ঘটনাস্থলে। সেখানে আটককৃতরা ভ্রাম্যমাণ আদালতের সামনে বন্যপ্রাণী হত্যার অপরাধ স্বীকার করে। এরপর ভ্রাম্যমাণ আদালত শজারু হত্যায় সরাসরি জড়িত থাকায় ২০১২ সালের বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে বিওসি কেছরিগুল এলাকার সুবল ভূমিজ ও জগ রবি চন্দ্রকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন। এছাড়া হত্যায় সহায়তা করার অপরাধে উকিল সাঁওতাল, বুধু সাঁওতাল, ওমেশ সাঁওতাল, রমেশ সাঁওতাল, কার্তিক সাঁওতাল, রাম সাঁওতাল ও কৃষ্ণ সাঁওতালকে ১০ হাজার টাকা করে মোট ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করেন আদালত। রাতেই তাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়।
বন্যপ্রাণী হত্যায় জেল, জরিমানার সত্যতা নিশ্চিত করে বড়লেখা ইউএনও ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. শামীম আল ইমরান জানান, ‘টিলা ও বন্যপ্রাণী আমাদের প্রকৃতির অবিচ্ছেদ্য অংশ। এগুলো রক্ষায় আমাদের সকলকে সচেতন থাকতে হবে। প্রশাসনের এধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে।’

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •