মৌলভীবাজারের বেঙ্গল কনভেনশন হল হাফ ম্যারাথন অনুষ্ঠিত

November 18, 2022,

স্টাফ রিপোর্টার॥ মৌলভীবাজারে ১০ কিলোমিটার ও ২১ কিলোমিটার বেঙ্গল কনভেনশন হল হাফ ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ম্যারাথনে দেশ বিদেশের ৬৫০ জন রানার অংশ গ্রহণ করে।

শুক্রবার ১৮ নভেম্বর সকাল ৬টায় মৌলভীবাজার সাইক্লিং কমিউনিটি ও মৌলভীবাজার রানার্স ক্লাবের আয়োজনে ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সার্বিক সহযোগীতায় হাফ ম্যারাথন ২০২২ শুরু হয়। হাফ ম্যারাথনের উদ্বোধন করেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মিছবাহুর রহমান।

সমাপনী অনুষ্ঠানে পুরস্কার বিতরণ করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাবরিনা রহমান বাঁধন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজার বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোশাহিদ আহমদ চুন্নু, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক আব্দুল হামিদ মাহবুব, বেঙ্গল ফুডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ মুনিম আহমদ রিমন, মৌলভীবাজার সাইক্লিং কমিউনিটির অ্যাডমিন ইমন আহমেদ, মৌলভীবাজার রানার্স ক্লাবের সঞ্জীব মীতৈ প্রমুখ।

জেলা শহরের শ্রীমঙ্গল সড়কে বেঙ্গল কনভেনশন হল থেকে শুক্রবার ১৮ নভেম্বর সকাল ৬ টায় ম্যারাথন শুরু হয়। সেখান থেকে বেরিরপার পয়েন্ট হয়ে শাহমোস্তফা রোড, প্রেসক্লাব মোড়, কোর্ট রোড হয়ে সরকারি কলেজের পাশ দিয়ে সোনাপুর-ইকোপার্কের সামনে দিয়ে কালেঙ্গা হয়ে দেওরাছড়া-প্রেমনগর চা-বাগানে যায়। সেখান থেকে ইউটার্ন নিয়ে শহীদ মুকিত সড়ক হয়ে মৌলভীবাজার জেলা স্টেডিয়ামে শেষ হয়।

২১ দশমিক ১ কিলোমিটারের হাফ মারাথনে দৌড়িবিদেরা প্রেমনগর চা-বাগানে গিয়ে ফিরে আসেন। আর ১০ কিলোমিটার মিনি ম্যারাথনের দৌড়িবিদেরা কালেঙ্গা গিয়ে ফিরে আসেন। উভয় দলই মৌলভীবাজার স্টেডিয়ামে এসে দৌড় শেষ করেন।

এই আসরে বাংলাদেশ ও ভারতের ৬৫০ জন রানার অংশ গ্রহণ করে। ১০ কিলোমিটার ছেলেদের দৌঁড়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন আশরাফুল ইসলাম ও ২১ কিলোমিটার দৌঁড়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন নৌবাহিনীর আশিফ বিশ্বাস।

অন্যদিকে মেয়েদের ১০ কিলোমিটারে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে রাশেদা আক্তার এবং ২১ কিলোমিটারে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন নাসরিন বেগম। এদের সবাই দেশ বিদেশের বিভিন্ন ম্যারাথনে অংশ গ্রহন করে থাকেন। হাফ ম্যারাথনে অংশগ্রহনকারী আয়োজকদের ভূয়সি প্রশংসা করে বলেন এ ম্যারাথনে অংশগ্রহন করতে পেরে তারা খুবই খুশি হয়েছেন।

সবুজ প্রকৃতি বেষ্ঠিত চায়ের রাজ্যে এমন আয়োজন সবাইকে পুলকিত করেছে। আয়োজকরা জানান হাফ ম্যারাথনটি তারা বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান এর নামে উৎসর্গ করেছেন। তারা বলেন দেশের অন্যতম পর্যটন জেলা, খনিজ সম্পদে ভরপুর, প্রবাসী অধ্যুষিত চায়ের দেশ হিসেবে খ্যাত মৌলভীবাজার জেলাকে বিশ্বব্যাপী তুলে ধরাই ছিলো তাদের এই আয়োজনের মূল উদ্দেশ্য।

 

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •