মৌলভীবাজার জেলা সদরে বিএনপির ৪৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

September 1, 2021, এই সংবাদটি ১০৪ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার॥ জাতীয় ও দলীয় উত্তোলন শান্তির পতাকা পায়রা উড়িয়ে আলোচনাসভা ও কেক কেটে মৌলভীবাজারে বিএনপির ৪৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়েছে। এতে বিএনপি ও অংগসংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
১ সেপ্টেম্বর বুধবার দুপুরে প্রয়াত অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের গ্রামের বাড়ী বাহারমর্দানে মৌলভীবাজার সদর উপজেলা বিএনপির আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি সাবেক পৌর মেয়র ফয়জুল করিম ময়ুন।
এতে সভাপতিত্ব করেন সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন মাতুক। সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান নিজাম। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলওয়াত করেন মোঃ আব্দুল মুকিত।
বিএনপির উদ্যোগে আয়োজিত এ সমাবেশে জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি সাবেক পৌর মেয়র ফয়জুল করিম ময়ুন বলেন, গণতন্ত্র নেই বলেই আজ দেশে আইনের শাসন নেই, ন্যায়বিচার নেই, সুশাসন নেই। বিএনপির এই নেতা আরও বলেন, আজ যখন আমরা প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করছি, তখন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া যিনি তিনবারের সফল প্রধানমন্ত্রী, তিনি আজ জেলখানায় রয়েছেন, যে টাকার কথা বলা হচ্ছে সেই টাকা আজ দ্বিগুণ হয়ে ব্যাংকে অবস্থান করছে অথচ দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে জেলখাটতে হচ্ছে। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মিথ্যা মামলা নিয়ে লন্ডনে অবস্থান করছেন।
এটার মানে কী? মানে হলো, দেশে একটা অসম লড়াই চলছে, দেশে একটা বৈষম্য চলছে, দেশে নিশিরাত্রের ভোট চলছে, দেশে গণতন্ত্র নেই, দেশের মানুষগুলো অধিকারহীনতায় রয়েছে। মানুষের মধ্যে আস্থা নেই, মানুষ সংকটে রয়েছে। এরকম পরিস্থিতির মধ্যে ইউনিয়ন পরিষদের, পৌরসভা নির্বাচন হয়, মানুষ ভোট দিতে পারছে না। গ্রামেও তারা নৌকা মার্কা নিয়ে গেছে, যাতে করে তাদের লোকগুলোকে রাষ্ট্রযন্ত্রের মাধ্যমে নির্বাচিত করা যায়। আজ জনগণের ভোটে নির্বাচিত সরকার হচ্ছে না। গণতন্ত্রের সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে জনগণের ভোটে নির্বাচন। আর ভোট না হলে যোগ্য নেতা কীভাবে নির্বাচিত হবে? ভোট নেই দেখে যোগ্য নেতাও নির্বাচিত হয় না।
সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি সাবেক ছাত্র নেতা ফয়সল আহমদ,জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি মোঃ হেলু মিয়া, জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক্ব ফখরুল ইসলাম, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক বকসী মিছবাউর রহমান, আলহাজ¦ মতিন বক্স, জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক আব্দুর রহিম রিপন, জেলা যুবদল সভাপতি জাকির হোসেন উজ্জ্বল, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক জি এম এ মুক্তাদির রাজু, সৈয়দ ফয়সল আহমদ, মোস্তাক আহমদ রুহিন, আজমল আমিন তরফদার, রকিব খান সদর উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন বিএনপির নেতৃবৃন্দ।
আলোচনা সভায় সাম্প্রতিক সময়ে দলের প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের লাশ নিয়ে ক্ষমতাসীন দলের শীর্ষ নেতাদের সমালোচনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বক্তারা, চন্দ্রিমা উদ্যান থেকে জিয়ার কবর সড়িয়ে নেয়া হলে রাজপথে আন্দোলনের মাধ্যমে জবাব দেয়া হবে বলে হুঁশিয়ারী দেন। এসময় গণতন্ত্র উদ্ধারে দলীয় নেতাকর্মীদের আন্দোলনের প্রস্তুতি নেয়ারও আহবান জানান নেতারা।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •