লন্ডনে আওয়ামীলীগ নেতা মাহমুদুর রহমানের দাফন কঠোর শতর্কতার মধ্যে সম্পন্ন হবে

March 19, 2020, এই সংবাদটি ২৮৩ বার পঠিত

লন্ডন প্রতিনিধি॥ করোনা ভাইরাসে মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক অর্থ সম্পাদক ও একাটুনা ইউনিয়ন ডেভেলপমেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের অন্যতম উপদেষ্টা মোঃ মাহমুদুর রহমান (৭৫) এর লন্ডনের একটি হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে। আজ ১৯ মার্চ লন্ডনের হেনল্ট পিচ অফ গার্ডেনে মাহমুদুর রহমান এর  দাফন অনুষ্ঠিত হবে।

এ বিষয়ে বৃটেনের কার্ডিফ থেকে সাংবাদিক মোহাম্মদ মকিস মনসুর জানান, গত ১৬ মার্চ লন্ডন সিটির গ্রেট অরমন্ড হাসপাতালে তিনি মৃত্যুবরণ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)। ব্রিকলেন ফোনারেল সার্ভিসের তত্বাবধানে ১৯ মার্চ বৃহস্পতিবার হেনল্ট পিচ অফ গার্ডেনে মাহমুদুর রহমান এর দাফন হওয়ার কথা রয়েছে। এ ব্যাপারে ব্রিকলেন তিনি বলেন তারা শুধু আইনি কাগজ পত্র ব্যবস্থা করে পিচ অফ গার্ডেনে হস্তান্তর করবেন, বাকী সব কাজ পিছ অফ অফ গার্ডেনের লোকেরা করবেন। বিশেষ নিরাপত্তায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত মৃত দেহ সেখানেই গোসল ও দাফন করা হবে। আর এ কাজ করার জন্য পিচ অফ গার্ডেন চারজন লোক নিয়োগ করেছে। বিশেষ কাপড় ও হেলমেট পরিধান করে লাশের গোসল করাবে এবং লাশ কবরে রাখবে। এ সময় কাউকে লাশ দেখানো হবে না। গোসলের পর লাশের ছবি তুলে পরিবারের সদস্যদের দেখানো হবে এবং ছবি দেখানোর পর ডিলিট করে দেওয়া হবে। এ ছাড়া সেখানে দুটি গাড়ীতে করে মোট ১৪ জন লোক যেতে পারবেন এর বেশী কোন লোক জানাযায় যেতে পারবেন না। জানাযার সময় একজন থেকে আরেক জনের দুরত্ব ১মিটার করে দাঁড়াতে হবে। লাশ কবরে রাখার সময় কবর থেকে দুই মিটার দুরত্বে দাঁড়াতে হবে।

উল্লেখ্য যে মরহুম মাহমুদুর রহমান গত বছর নাতনীর বিয়েতে যোগদানের জন্য সস্ত্রীক লন্ডনে বেড়াতে গিয়ে ব্রেন ষ্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে প্রথমে ইউ সি এল হসপিটেলে চিকিৎসাধীন

ছিলেন। পরে সেখান থেকে গ্রেট অরমন্ড হসপিটেলে স্থানান্তর করা হয়। ধীরে ধীরে তিনি উন্নতির দিকে যাচ্ছিলেন কিন্তু প্রায় দশ দিন আগে হসপিটালে থাকা অবস্থায় করোনায় আক্রান্ত হন।

লন্ডনে অবস্থানরত মরহুমের ছেলে মুহিবুর রহমান মুহিব  সকলের কাছে দোয়া কামনা করে বলেন করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের কারণে আমার বাবার জানাজায় সবাই শরীক হতে না পারায় দূঃখ প্রকাশ করেন। তিনি মহাণ আল্লাহু রাব্বুল আলামীন যেনো তার বাবাকে জান্নাতবাসী করেন এই দোয়ার জন্য সবার নিকট অনুরোধ জানিয়েছেন।

তার গ্রামের বাড়ি মৌলভীবাজার সদর উপজেলার একাটুনা ইউনিয়নের বরমান গ্রামে। তিনি দীর্ঘদিন থেকে মৌলভীবাজার জেলা সদরে ট্রাভেলস এজেন্সী ব্যবসার সাথে জড়িত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •