শ্রীমঙ্গলে একের পর ঘটছে অভিনব কায়দায় লুট মুমূর্ষ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি-৪

May 19, 2016, এই সংবাদটি ২৪৫ বার পঠিত

 

srimanagal dakati news pic1বিশেষ প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে একের পর এক ঘটছে অভিনব কায়দায় ডাকাতির ঘটনা। এতে করে জনমনে বিরাজ করছে চরম আতঙ্ক। সম্প্রতি শ্রীমঙ্গলের কলেজরোডে মুন অপটিকস এর মালিকের বাসায় ঘটে যাওয়া দুর্ধর্ষ ডাকাতির রেস কাটতে না কাটতেই একই কায়দায় খাবারের সাথে চেতানা নাশক দ্রব্য মিশিয়ে ঘটেছে ডাকাতির ঘটনা।

মঙ্গলবার ভোররাতে শহরের রুপসপুর এলাকায় সাবেক পৌর সচীব মৃত জাহাঙ্গীর আলম এর বাসভবনে খাবারের সাথে চেতনা নাশক দ্রব্য মিশিয়ে বাড়ির ৪ জনকে অজ্ঞান করে ঘরের জিনীস পত্র লুট করেছে দূর্বৃত্তরা। ১৮মে বুধবার সকালে প্রতিবেশীরা দরজা ভেঙ্গে তাদের উদ্ধার করে স্থানীয় শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পার্ভিন আক্তার (৪৫), হোয়াইরা তাবাস্সুম সেতু (১৫), তাজুয়ার আলম তাসিম ও শ্রাবন্তী জামান (৩৫) কে ভর্তি করেন পরে শ্রাবন্তী জামানের অবস্থা অবনতি ঘটায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ঘটনার শিকার সেতু জানায়, মঙ্গলবার রাতের খাবার খেয়ে সবাই ঘুমিয়ে পরে। মধ্য রাতে তার জ্ঞান ফিরে আসলে দেখতে পায় ঘরের ভিতর কয়েকজন অপরিচিত মানুষ দাড়িয়ে আছে। এক পর্যায়ে তার আর্ত-চিৎকারে ডাকাতদল পালিয়ে যায়। ঘরের সব আসবাব পত্র তছনছ অবস্থায় দেখতে পেয়ে পরিবারের অন্য সদস্যদের ডাকতে গেলে সবাই অচেতন হয়ে পরে আছে দেখে এক পর্যায়ে মেয়েটি পুনরায় অজ্ঞান হয়ে যায়।

ঘটনার শিকার আরেকজন তাসিম জানায়, রাতে কচু শাক দিয়ে খাবার খাওয়ার পর মাথা ঘুরিয়ে ৩ বার মেঝেতে পরে যায়। এবং খাওয়ার সময় একটা অন্য রকম গন্ধও খাবার থেকে আসছিল বলে সে জানায়।খবর পেয়ে মৌলভীবাজার পুলিশ সার্কেল মোল্লা মোঃ শাহীন শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শন করেছেন। এ ব্যাপারে তিনি সাংবাদিকদের জানান, ঘটনাটির ভিতরে অন্য রকম ব্যাপার রয়েছে বলে আমার মনে হয়। যেহেতু তাদেরকে জিজ্ঞাসা করার পরিবেশ এই মুহুর্তে¡ নেই তাই এখন পরিস্কার করে কিছু বলতে পারছি না। তারা সুস্থ হয়ে উঠার পর  জিজ্ঞাসাবাদ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •