শ্রীমঙ্গলে গ্রামবাসীর হাতে এক ডাকাত আটক ॥ ৪ গ্রামবাসী আহত

April 9, 2016, এই সংবাদটি ১৬৮ বার পঠিত

বিকুল চক্রবর্তী:  শ্রীমঙ্গলের ভীমসি গ্রামে ডাকাতের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে পাহারাদারসহ ৪ গ্রামবাসী আহত হয়েছেন।  এ সময় এক ডাকাতকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেছে গ্রামবাসী। ঘটনাটি ঘটে মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভুনবীর ইউনিয়নের ভীমশি  গ্রামে ব্যবসায়ী নিজাম মিয়ার বাািড়তে। গ্রামবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শী  এবং ডাকাতির স্বীকার নিজাম মিয়া জানান, ৯ এপ্রিল শনিবার ভোর রাত ৩টার দিকে  দরজা ভেঙ্গে ৮/১০জনের ডাকাত দল তার ঘরে প্রবেশ করে। এক ডাকাত তার গলায় দা ধরে চেঁছামেচি না করার জন্য বলে। ডাকাতরা ঘরের লাইট জ্বালাতে কুদ্দুছ মিয়া নামে একজনকে চিনে কুদ্দুছ নাকি বলতেই কুদ্দুছ দৌড়ে পালিয়ে যায়। সাথে সাথে ঘরের অন্যরা ডাকাত বলে চিৎকার দিলে সব ডাকাত পালিয়ে যায়। এ সময় গ্রামবাসী ডাকাতদের পিছু নিয়ে আটক করতে চাইলে ডাকাতরা গ্রামের রফিক মিয়া নামে একজনের মাথায় এবং হাতে কুপ দিয়ে ক্লোনেল চা বাগানের দিকে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে ক্লোননেল চা বাগানের পাহারাদাররা ডাকাতদের ব্যারিকেড দিলে ডাকাতরা  পাহারাদারদেরও দা দিয়ে কুপিয়ে ও লাঠি দিয়ে আঘাত করে ৪ জন পাহারাদারকে আহত করে। এদের মধ্যে মেঘা নামের এক পাহারাদারের অবস্থা আশংকাজনক। এদিকে নিজাম উদ্দিনের মুখে কুদ্দুছের নাম শুনে গ্রামবাসী কুদ্দুছের বাড়িতে গিয়ে তাকে আটক করে পুলিশে খবর দিলে কুদ্দুছ সকলের কাছ থেকে টয়লেটে যাওয়ার কথা বলে ছুটে পালিয়ে যায়। পরে গ্রামবাসীও পেছনে ধাওয়া করে এক বাড়ির ধানের ভাড়ার থেকে তাকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেন। এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য তাহির মিয়া ও সুভাষ লাল রায় জানান, ডাকাতের হানার খবর পেয়ে রাতেই গ্রামবাসীর সাথে তারাও ডাকাতের পেছনে ছুটেন। এসময় ডাকাতের দায়ের আঘাতে  গুরুতর আহত রফিক ও চা বাগানের পাহারাদার মেঘা সাওতাল কে শ্রীমঙ্গল সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। সকালে তারা কুদ্দুছের বাড়িতে গিয়ে তাকে আটক করলে সে পালিয়ে যায়। পরে আবারও ধাওয়া করে তাকে আটক করেন। এ ব্যাপারে ক্লোনেল চা বাগানের মালিক ও শ্রীমঙ্গল দ্বারিকাপাল মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ সৈয়দ মনসুরুল হক  জানান, বস্তি এলাকায় ডাকাতি করে ডাকাত দল পালিয়ে যাওয়ার পথে তার বাগানের পাহারাদাররা তাদের বাঁধা দিলে ডাকাতরা তার পাহারাদারদের দা দিয়ে কুপিয়ে আহত করে।  এ ব্যাপারে ভুনবীর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ জানান, ধৃত কুদ্দুছ এর আগেও গরু চুরি করতে গিয়ে ধরা পড়ে। সে এবং তার ভাইয়েরা মিরপুর, বাহুবল ও চুনারুঘাট থেকে ডাকাতদল হায়ার করে ডাকাতি করায়।  তিনি জানান,  আগের রাতে ক্লোনেল নতুন বাগান এলাকার রাধিকা ষ্টোরের তালা কেটে ফ্রিজসহ লক্ষাধিক টাকার মালামাল এরা চুরি করে। এ ব্যাপারে শ্রীমঙ্গল থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান জানান, গ্রামবাসী আটক করে পশ্চিম ভীমশি গ্রামের মৃত আবুল হোসেন মিয়ার ছেলে কুদ্দছ মিয়া (৪০) কে আটক করে তাদের হাতে সোপর্দ করেছে। তারা তদন্ত করে দেখছেন সে ডাকাতির সাথে জড়িত কিনা।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •