শ্রীমঙ্গলে ৫ বছরের শিশুর গলাকাটা লাশ উদ্ধার : একজন গ্রেপ্তার

July 1, 2020, এই সংবাদটি ১২৪ বার পঠিত

তোফায়েল পাপ্পু॥ মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে পূর্বের শত্রুতার জের ধরে ৫ বছরের এক শিশুকে গলাকেটে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় পুলিশ মোঃ ইউনুস (ঝুলন) নামের এক চা শ্রমিককে আটক করেছে।
জানা যায় শ্রীমঙ্গল উপজেলার বিলাস ছড়া চা বাগানের শিবু রাম গৌরের ছেলে রিমন গৌর (৫) প্রতিদিনের মতো শিশুটি দুপুর ২টার দিকে ঘর থেকে খেলার জন্য বাহিরে বের হয়। ঘর থেকে বের হওয়ার পর থেকেই শিশুটিকে আর কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। অনেক খোঁজাখুঁজির পর বাড়ি থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার দূরে চা বাগানের ভেতর ছড়ার পাশে ঝোপের মধ্যে শিশুটির অর্ধ গলাকাটা লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়। সেখান থেকে ফোনে বিষয়টি থানা পুলিশকে জানালে শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ আশরাফুজ্জামান এর নেতৃত্বে শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুছ ছালেক সহ পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। সেখান থেকে শিশুটির অর্ধ গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ময়না তদন্তের জন্য লাশটি নিয়ে আসা হয়।
এ বিষয় জানতে চাইলে শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুছ ছালেক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে বিষয়টি আমরা জানতে পারি। তাৎক্ষণিক আমরা সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান এর নেতৃত্বে ঘটনাস্থলে যাই। সেখান থেকে শিশুটির গলাকাটা লাশ উদ্ধার করি। এ ঘটনায় ঝুলন নামের এক চা শ্রমিককে বুধবার ভোরে প্রেপ্তার করা হয়।
উল্লেখ্য টমটম থেকে ব্যাটারী চুরির ঘটনায় এক শালিশ হয়। ওই শালিশে নিহত রিমন গৌর এর বাবা শিবু রাম গৌর সহ আরও কয়েকজন উপস্থিত ছিলেন। শালিসে গ্রেপ্তারকৃত মোঃ ইউনুস (ঝুলন)কে ব্যাটারী চোর সাব্যস্ত্য করা হয়। এ ঘটনার জেরে হত্যাকান্ডটি ঘটনো হয়েছে বলে পুলিশ ধারনা করছে। আটককৃত ঝুলন ১৪৪ ধারায় মৌলভীবাজার চীপজুডিসিয়েল আদালতে হত্যার বিষয়ে স্বীকারউক্তি মূলক জবানবন্দী দিয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য লাশটি মৌলভীবাজার ২৫০ শয্য বিশিষ্ট সদর হাসপাতালেরর মর্গে পাঠানো হয়।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •