শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদ উপ-নির্বাচনে প্রার্থী হচ্ছেন প্রয়াত চেয়ারম্যান রনধীর পুত্র

September 4, 2021, এই সংবাদটি ১১১ বার পঠিত

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি॥ শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচনে প্রার্থী হচ্ছেন উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক রাজু দেব রিটন। তিনি প্রয়াত জননন্দিত ও টানা তিন বারের নির্বাচিত উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক রনধীর কুমার দেব এর পুত্র।
৭ অক্টোবর শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। গত ২ সেপ্টেম্বর নির্বাচন কমিশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষনা করে।
২১ মে শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রনধীর কুমার দেব’র মৃত্যুতে পদটি শূন্য হয়ে পড়ে। প্রয়াত রনধীর কুমার দেব শ্রীমঙ্গল উপজেলায় টানা তিন বার আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিয়ে তুমুল জনপ্রিয়তায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন। এর আগে তিনি উপজেলার সাতগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের টানা ৪ বারের চেয়ারম্যান ছিলেন। রনধীর কুমার দীর্ঘদিন শ্রীমঙ্গল উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টানঐক্য পরিষদ, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদসহ বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় সংগঠনের সাথে জড়িত ছিলেন। শ্রীমঙ্গল তথা বৃহত্তর সিলেট অঞ্চলে জনপ্রিয় এই রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের শূন্যতা কখনও পূরণ হবার নয়। পিতার রাজনৈতিক সামাজিক ও ধর্মীয় সকল অঙ্গন আর সব শ্রেণীপেশার মানুষ তাঁর অনুপস্থিতি এখনও অনুভব করেন- বললেন রাজু দেব রিটন।
বি.বি.এ ও এম.বি.এ পাস রাজু দেব রিটন ২০০৫ সালে নবম শ্রেনীতে অধ্যায়নরত থাকাকালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক এর নেতৃত্বে ভিক্টোরিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে শ্রীমঙ্গল সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদকের উপস্থিতিতে ফরম পুরন করে ছাত্রলীগের কর্মী হিসাবে রাজনীতি শুরু করেন। ওয়ান ইলিভেনের সময় বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার মুক্তির দাবিতে ছাত্রলীগ এর নেতৃত্বে রাজপথে অবস্থান করেন এবং ২০০৮ সালে সংসদ নির্বাচনে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করার লক্ষে বিভিন্ন ইউনিয়নে দলিয় কার্যক্রমে অংশগ্রহন করেন। তিনি ২০১৭ সালের বাংলাদেশ ছাত্রলীগ শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার সম্মেলনে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ,জেলা আওয়ামীলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় সংসদ সদস্য ও ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদকের উপস্থিতিতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পান। উনার পিতা প্রয়াত রনধীর কুমার দেব আওয়ামীলীগের সমর্থনে টানা তিনবার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও তিনবার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন (২০১৯ এ নৌকা প্রতিকে)। ২০১৪ এবং ২০১৯ এর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তিনি প্রত্যক্ষ্য ভাবে দলিয় নেতৃবৃন্দকে সাথে নিয়ে নির্বাচন পরিচালনা করেন। সর্বোপরি তিনি ২০০৮ থেকে নৌকা প্রতিকের সকল নির্বাচনে (সংসদ,উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদ) সক্রিয় ভাবে জড়িত থেকে নৌকার বিজয়ের লক্ষে কাজ করেন।
এছাড়াও তিনি বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত রয়েছেন। ২০১৩ সালে বিএনপি ও জামায়াতের সন্ত্রাসবিরোধী আন্দোলনে রাজপথে রাজু দেব রিটনের সরব উপস্থিতি দলীয় রাজনৈতিক মহলে সমাদৃত হয়।
রাজু দেব রিটন বলেন, ‘আমার বাবা জীবনের সমস্ত সময়টা দেশ ও দেশের মানুষের কল্যানে ব্যয় করেছেন। মানুষের বিপদে ছুটে গেছেন, সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। টানা ৩৫ বছর জনপ্রতিনিধি হিসেবে মানুষের পাশে থাকার সুযোগ পেয়েছেন। রাজু বলেন, এই খুব কম মানুষের জীবনে এমনটা ঘটে। বাবা হওয়ার কারণে তাঁর সকল রাজনৈতিক কর্মকান্ড খুব কাছ থেকে দেখেছি’ বলে জানান রাজু। পিতার এই জনপ্রিয়তাকে সামনে রেখে তাঁর পদ অনুস্বরণ করে মানুষের সেবা করতে নির্বাচনে অংশ নিতে চান রাজু দেব।
সদালপি ও স্বচ্ছ ইমেজের ছাত্রনেতা হিসেবে রাজু পিতার যোগ্য উত্তরসুরি হিসেবে সমান পরিচিত। দলীয় কোন্দল উপেক্ষা করে রাজু ২০০৮ সাল থেকে নৌকা প্রতীকের সকল সংসদ, উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সক্রিয় থেকে নৌকার বিজয়ে নিজের যোগ্যতার স্বাক্ষর রাখেন। রাজু দেব প্রত্যাশা করেন যোগ্য হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ তাকে মনোনয়ন দেবেন। দল মনোনয়ন দিলে তিনি নির্বাচনে নিজের ও দলের জনপ্রিয়তার প্রমান দিতে সক্ষম হবেন। এজন্য তিনি সকলের দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করছেন।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •