সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ কুলাউড়ার শরীফপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়ায় চুরির মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে হয়রানীর প্রতিকার দাবি

January 20, 2021, এই সংবাদটি ১০৮ বার পঠিত

প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ॥ কুলাউড়া উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়ায় চুরির মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে হয়রানীর প্রতিবাদে সুষ্ঠু বিচারের দাবীতে কমলগঞ্জে সংবাদ সম্মেলন করেছেন চেয়ারম্যান প্রার্থী সঞ্জবপুর গ্রামের বাসিন্দা মো. সাইফুর রহমান সাইফ আলী। ১৯ জানুয়ারী মঙ্গলবার দুপুরে কমলগঞ্জ সাংবাদিক সমিতির শমমশেরনগরস্থ কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে শরীফপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. সাইফুর রহমান সাইফ আলী বলেন, দীর্ঘ সময় ধরে প্রবাসে অবস্থান করে প্রায় দু’বছর ধরে আমি দেশে আসার পর কৃষিক্ষেত করে জীবিকা নির্বাহ করছি। আমি ও আমার পূর্বপুরুষদের কখনও কোন খারাপ অপবাদ নেই। অত্যন্ত সুনামের সহিত আমরা এলাকায় বসবাস করে আসছি। আমাদের ইউনিয়নের সঞ্জবপুর গ্রামের ব্যবসায়ী মাও: সাইদুর রহমান মোল্লা এর বাড়িতে আমার মামাতো বোনের বাড়ি। আমি ও আমার সঙ্গী আহমদ আলী প্রতিদিনের মতো গত ১০ জানুয়ারী রাতে পূর্বভাগ মাজার থেকে জিকির ও জিয়ারত করে আসার পথে আমতলা বাজারের পাশে সাইদুর রহমান এর বাড়িতে হাল্লাচিৎকার শুনে মারামারির আশঙ্কা করে আমরা তাদের বাড়িতে যাই বিষয়টি বুঝার জন্য। পরে তাদের বাড়িতে গিয়ে জানতে পারি মাও: সাইদুর রহমানের ঘরে চুরি হয়েছে। বিষয়টি শুনে তাদের বাড়িতে আমরা দীর্ঘসময় অবস্থান করে বাড়ির লোকজনের সাথে কথাবার্তা বলে নিজ নিজ বাড়িতে ফিরে যাই।
চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. সাইফুর রহমান সাইফ আলী আরও বলেন, রাতে মাও: সাইদুর রহমান মোল্লার বাড়িতে হাল্লাচিৎকার শুনে বিষয়টি প্রত্যক্ষ করার জন্য যাওয়ার ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সাইদুর রহমান মোল্লা বাদি হয়ে আমি ও আমার সঙ্গী আহমদ আলীকে আসামী করে সমাজে আমাদের মানহানির জন্য সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে কুলাউড়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। তিনি বলেন, আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আমার কিছু সমর্থকদের অনুপ্রেরনায় চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে প্রতিদ্বন্ধিতা করার ইচ্ছা পোষণ নিয়ে নতুন বছরের শুরুর দিকে আমি কিছু ফ্যাস্টুন টাঙ্গিয়ে স্থানীয় ইউনিয়নবাসীর প্রতি শুভেচ্ছা জানাই। যে কারণে চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়ার বিষয়টিকে একটি মহল ভালোভাবে মেনে নিতে পারছে না। তারা নানা কল কৌশলে সমাজে আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করতে বিভিন্ন অপতৎপরতা শুরু করেছে।
তারই ধারাবাহিকতায় একটি প্রভাবশালী মহল দ্বারা প্রভাবিত হয়ে মাও: সাইদুর রহমান মোল্লা ও আমার মামাতো ভগ্নিপতি খোকন মিয়া আমি ও আমার সঙ্গীকে সম্পৃক্ত করে চুরির অভিযোগ তুলে মিথ্যাচার চালিয়ে যাচ্ছে। অথচ স্থানীয় এলাকাবাসী আমাদের রেকর্ড বিষয়ে সম্পূর্ণ ওয়াকিবহাল। অভিযোগের তদন্তে পুলিশ সরেজমিনে এসেও আমাদের পরিবার ও বংশের বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য প্রমাণ পেয়েছেন। তাই সুষ্ঠু বিচারের দাবী জানাচ্ছি।
এ ব্যাপারে মাও: সাইদুর রহমান মোল্লার সাথে একাধিববার যোগাযোগের চেষ্টা করে তার বক্তব্য জানার চেষ্টা করে পাওয়া যায়নি।
কুলাউড়া থানার উপ-পরিদর্শক শাহীন আহমদ বলেন, চুরির একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত চলছে। তদন্তক্রমে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •