৫ সেপ্টেম্বর সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের ১২তম মৃত্যু বার্ষিকী

September 4, 2021, এই সংবাদটি ৭৮ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার॥ মৌলভীবাজার জেলার কৃতিসন্তান শহীদ রাস্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ঘনিষ্ট রাজনৈতিক সহচর প্রয়াত অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রী, বিএনপির স্থায়ী কমিটির অন্যতম সদস্য, ভাষা সৈনিক এম সাইফুর রহমান এর ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী ৫ সেপ্টেম্বর। এ উপলক্ষে সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদ ও মৌলভীবাজার জেলা বিএনপি বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করবে।
মরহুম এম সাইফুর রহমান কর্মময় জীবনে তার অনন্য গুণে মানুষের হ্রদয়ে ঠাঁই করে নিয়ে ছিলেন। তার সাদামাঠা ব্যক্তিগত জীবন মানুষের দৃষ্টি কাড়ত। ছিল না চাওয়া পাওয়ার অস্থিরতা। এমনকি উচ্চ আকাঙ্খা উচ্চ বিলাসিতাও পচন্দ ছিলনা একদমই। কথা বলতেন মারপ্যাচের জটিলতা ছাড়াই সরল সহজ আর ইংরেজী মিশ্রিত আঞ্চলিকতায়। একারণেই দেশ বিদেশে সকল শ্রেণীর মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্যতা ছিল তাঁর। দেশ দুনিয়ায় নাম কুড়ানো মৌলভীবাজারের বাহারমর্দনের সেই ছেলেটি দেশের অন্যতম অর্থমন্ত্রী যিনি একনাঘাড়ে ১২ বার সংসদে বেশ সফলতার সাথে বাজেট পেশ করেছেন। কর্মে তারঁ অনন্য গুণ তিনি উন্নয়নের যে স্বপ্ন দেখতেন তা বাস্তবায়নও করতেন। এটাই তার অবিচল আস্তা বিশ্বাস আর কাজের প্রতি নিখাঁদ আন্তরিকথা ও কর্তব্যকর্মে দ্বায়িত্বশীলতার নজির। নিজ জন্মস্থান মৌলভীবাজারসহ পুরো সিলেট বিভাগেই রয়েছে তার চোখ ধাধাঁনো উন্নয়নের চোঁয়া।
২০০৯ সালের ৫ সেপ্টেম্বর এক মর্মান্তিক সড়ক র্দূঘটনায় নিহত হন। তার শেষ ইচ্চানুযায়ী বাহারমর্দনে তাকে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)র’ প্রতিষ্টা লগ্নে দলটির প্রতিষ্টাতা জিয়াউর রহমান আপন করে ডাকলেন দল গঠনে অংশ নিয়ে দেশও জাতীর কল্যাণে নিবেদীত হতে। তিনি তাই করলেন। রাজনীতিতে এলেন আলোকিত করলেন আলোকিত হলেন। ১৯৯৬ সালে ষষ্ট ও সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মৌলভীবাজার-৩ আসন ও ২০০১ সালের অষ্টম সংসদ নির্বাচনে মৌলভীবাজার-৩ ও সিলেট-১ আসন থেকে বিপুল ভোটে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০০৬ সালের ৮ই জুন তিনি সংসদে দ্বাদশ বাজেট পেশ করে দেশের সংসদীয় ইতিহাসে সর্বাধিক সংখ্যক বাজেট পেশকারী হিসেবে রের্কড গড়েন। তিনি দীর্ঘদিন দেশের অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন ছাড়াও দেশ-বিদেশের স্বার্থসংশ্লিষ্ট প্রতিষ্টানগুলোতেও নানা গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন কৃতিত্বের সাথে। তাঁর জীবদ্দশায় দেশ ও বৃহত্তর সিলেট নিয়ে যে উন্নয়ন মহা পরিকল্পনা করেছিলেন তার অনেক গুলো বাস্তবায়ন হলেও পুরোটা বাস্তবায়ন করতে পারেন নি। হঠাৎ এক র্মমান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় নিভেযায় তার জীবন প্রদীপ,স্তব্ধ হয়ে যায় তার দেখা উন্নয়ন মহাপরিকল্পনার স্বপ্ন। দুপুরে সাথে আলাপকালে তাঁর জ্যৈষ্ঠ পুত্র সাবেক এমপি ও মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি এম নাসের রহমান জানান তার বাবা সবসমই মানুষের কল্যাণে কাজ করতে পচন্দ করতেন। দেশ ও বৃহত্তর সিলেটে তিন যে দৃষ্টান্তকারী উন্নয়ন করে গেছেন এটিই তার বড় প্রমাণ। সাইফুর রহমান মানুষের হ্রদয়ে ঠাঁই পেয়েছেন। মানুষের কল্যাণে করা উন্নয়নমূলক কাজের স্বীকৃতি পেয়েছেন।
১২তম মৃত্যুবার্ষিকীতে নানা কর্মসূচী ঃ ১২ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এম.সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদ, মরহুমের পরিবার ও জেলা বিএনপির পক্ষ থেকে তাঁর গ্রামের বাড়িতে কোরানে খতম, দোয়া, মিলাদ মাহফিল ও শিরণী বিতরণের আয়োজন করা হয়েছে। এম সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদ উদ্যোগে দুপুরে বাহারমর্দনের বাড়িতে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।
এছাড়াও বিএনপির স্থানীয় জেলা ও উপজেলার নেতাকর্মীরা সকালে মরহুমের কবরে পুস্পস্তবক অর্পণ, মিলাদ মাহফিল, দোয়া ও স্মরণ সভাসহ নানা কর্মসূচী পালন করবেন। স্মরণ সভায় উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে, বিএনপির স্থায়ী কমিটির অন্যতম সদস্য গয়েশ^র চন্দ্র রায়, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এজেডএম জাহিদ হোসেন, সাবেক মন্ত্রী বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. সাখাওয়াত হাসান জীবন, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, বিএনপির সমবায় বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ জিকে গউস, কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দসহ সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দ।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •