নির্বাচন করছেন না কুলাউড়ার সাবেক ও বর্তমান ২ এমপি

December 3, 2013, এই সংবাদটি ২১৩ বার পঠিত

মৌলভীবাজার-২ কুলাউড়া-কমলগঞ্জ (আংশিক) আসন এলাকায় ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের লক্ষ্যে রেকর্ড সংখ্যক প্রার্থী মনোনয়ন ফরম ক্রয় করে ৫ জন জমা দিলেও মনোনয়ন ক্রয় বা জমা দেননি এ আসনের সাবেক ও বর্তমান দুই সংসদ সদস্য। এ দুই সংসদ সদস্যের সাফ কথা, সর্বদলীয় গ্রহণযোগ্য নির্বাচন না হলে তারা নির্বাচন করবেন না। এদের একজন হলেন, মৌলভীবাজার-২ কুলাউড়া আসনের সাবেক এমপি, ডাকসু’র সাবেক ভিপি ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, বঙ্গবন্ধু সৈনিক সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ। তিনি ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত আওয়ামীলীগের এমপি ছিলেন। একই আসনের অপরজন হলেন, জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান, নবাব পরিবারের সন্তান, মহাজোটের বর্তমান সংসদ সদস্য নওয়াব আলী আব্বাছ খান। এমপি আব্বাছের ঘনিষ্ট সূত্রে জানা যায়, তিনি গত শুক্রবার সন্ধ্যায় জাতীয় পার্টির সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফরের নেতৃত্বে বেগম খালেদা জিয়ার সাথে সাক্ষাৎ করেছেন। আলী আব্বাছ খান এমপি জানান, কাজী জাফর আহমদের নেতৃত্বে আমরা ঐক্যবদ্ধ, সকল দলের অংশ গ্রহনে নিরপেক্ষ তত্ববধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হলে আমি নির্বাচন করবো। তবে এ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য নবাব আলী আব্বাছ খাঁন এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণা তেমন না করলেও সুলতান মোহাম্মদ মনসুর অনেক আগ থেকেই এলাকায় ব্যাপক গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। নির্বাচনে অংশ গ্রহন করবেন কিনা জানতে চাইলে সাবেক এমপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ জানান, সুষ্ট-নিরপেক্ষ, জনগনের কাছে গ্রহনযোগ্য নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি হলে অবশ্যই নির্বাচন করব। কোন দলের ব্যানারে নির্বাচন করবেন জানতে চাইলে তিনি এড়িয়ে গিয়ে বলেন, নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি হলে সময়ই তখন বলে দেবে। এদিকে গত ২৯ নভেম্বর শুক্রবার মৌলভীবাজার-২ আসনে সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে আওয়ামীলীগ থেকে মৌলভীবাজার সদর উপজেলার বাসিন্দা সাবেক এআইজি সৈয়দ বজলুল করিমকে মনোনীত করা হয়েছে।
মৌলভীবাজার-২ কুলাউড়া-কমলগঞ্জ (আংশিক) আসন এলাকায় ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের লক্ষ্যে রেকর্ড সংখ্যক প্রার্থী মনোনয়ন ফরম ক্রয় করে ৫ জন জমা দিলেও মনোনয়ন ক্রয় বা জমা দেননি এ আসনের সাবেক ও বর্তমান দুই সংসদ সদস্য। এ দুই সংসদ সদস্যের সাফ কথা, সর্বদলীয় গ্রহণযোগ্য নির্বাচন না হলে তারা নির্বাচন করবেন না। এদের একজন হলেন, মৌলভীবাজার-২ কুলাউড়া আসনের সাবেক এমপি, ডাকসু’র সাবেক ভিপি ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, বঙ্গবন্ধু সৈনিক সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ। তিনি ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত আওয়ামীলীগের এমপি ছিলেন। একই আসনের অপরজন হলেন, জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান, নবাব পরিবারের সন্তান, মহাজোটের বর্তমান সংসদ সদস্য নওয়াব আলী আব্বাছ খান। এমপি আব্বাছের ঘনিষ্ট সূত্রে জানা যায়, তিনি গত শুক্রবার সন্ধ্যায় জাতীয় পার্টির সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফরের নেতৃত্বে বেগম খালেদা জিয়ার সাথে সাক্ষাৎ করেছেন। আলী আব্বাছ খান এমপি জানান, কাজী জাফর আহমদের নেতৃত্বে আমরা ঐক্যবদ্ধ, সকল দলের অংশ গ্রহনে নিরপেক্ষ তত্ববধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হলে আমি নির্বাচন করবো। তবে এ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য নবাব আলী আব্বাছ খাঁন এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণা তেমন না করলেও সুলতান মোহাম্মদ মনসুর অনেক আগ থেকেই এলাকায় ব্যাপক গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। নির্বাচনে অংশ গ্রহন করবেন কিনা জানতে চাইলে সাবেক এমপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ জানান, সুষ্ট-নিরপেক্ষ, জনগনের কাছে গ্রহনযোগ্য নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি হলে অবশ্যই নির্বাচন করব। কোন দলের ব্যানারে নির্বাচন করবেন জানতে চাইলে তিনি এড়িয়ে গিয়ে বলেন, নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি হলে সময়ই তখন বলে দেবে। এদিকে গত ২৯ নভেম্বর শুক্রবার মৌলভীবাজার-২ আসনে সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে আওয়ামীলীগ থেকে মৌলভীবাজার সদর উপজেলার বাসিন্দা সাবেক এআইজি সৈয়দ বজলুল করিমকে মনোনীত করা হয়েছে। কুলাউড়া অফিস॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •