জেলার বিভিন্ন পূজা মন্ডপ থেকে ৩১ মহিলাসহ ১ পুরুষ চোর আটক

October 13, 2013, এই সংবাদটি ৩১৩ বার পঠিত

কুলাউড়া থানা পুলিশ পূজা মন্ডপ ও শহরের দুই হোটেলে দুই দফা অভিযান চালিয়ে ২৫জন, রাজনগরে ১ জন ও শ্রীমঙ্গলে ৪ জন মহিলা এবং ১ জন পুরুষ চোরকে আটক করেছে। পুলিশ জানায় কুলাউড়া উপজেলার কাদিপুর ইউনিয়নের শিববাড়ী পূজা ম-প থেকে এক মহিলার স্বর্ণের চেইন চুরি কালে গত ১১ অক্টোবর শুক্রবার ৯ জন মহিলা চোরকে প্রথমে আটক করা হয়। তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী শহরের হানিফ ও বাদশাহী হোটেল থেকে অভিযান চালিয়ে আরো ১৬জন মহিলা ও ১ জন পুরুষকে আটক করা হয়। এ নিয়ে সর্বমোট আটকের সংখ্যা ২৬ জন। আটককৃতরা হলো ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ধরমন্ডল গ্রামের ফিরোজ মিয়ার স্ত্রী সকিনা (৩২), একই গ্রামের সুবহান মিয়ার স্ত্রী স্বপ্না বেগম (২৫), রবিউল আউয়ালের স্ত্রী আলসুমা বেগম, শরিফ মিয়ার স্ত্রী সুহেনা আক্তার (২০), সাজু মিয়ার স্ত্রী আসমা বেগম (২০), আলমগীর হোসেনের স্ত্রী রোজিনা বেগম (২৫), ফরিদ মিয়ার স্ত্রী হোসনা বেগম (৩২), মনির মিয়ার স্ত্রী রিনা বেগম (২৮), হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলার বাগেরসুরা গ্রামের আব্দুল আউয়ালের স্ত্রী হালিমা বেগম (৩২) ও তাজুল ইসলাম এর স্ত্রী বানেছা বেগম (৪৫)। অপরদিকে শনিবার ভোরে কুলাউড়া শহরের বাদশাহী ও হানিফ হোটেল থেকে আটককৃতরা হলো, মাধবপুর উপজেলার বাগেরসুরা গ্রামের মৃত ছবুর হোসের স্ত্রী মিনারা বেগম(৪৫) ও মেয়ে পারভিন আক্তার(১৮),একই গ্রামের রাজা মিয়ার স্ত্রী মেহের চাঁন(৩৫) ও মেয়ে নাজমিন আক্তার(১৮), হেলাল মিয়ার স্ত্রী সাহেনা বেগম(২৮), মোশারফ হোসেনের স্ত্রী রুজিনা বেগম(২২), মজনু মিয়ার স্ত্রী কুলছুমা বেগম(৩৫), বিল্লাল হোসেনের স্ত্রী সালমা বেগম(২১), জালাল মিয়ার স্ত্রী হোসনা বেগম (২৩), মৃত নুর মিয়ার মেয়ে সাহেদা খাতুন(৩০), শিবলু মিয়া (৪১), জোসনা বেগম(২৩)। ব্রাহ্মনবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ধরমন্ডল গ্রামের আক্কাছ মিয়ার স্ত্রী আলেমা বেগম(২৩), সালাউদ্দিনের স্ত্রী সুফিয়া বেগম (৩৫), আবু মিয়ার স্ত্রী মিতু বেগম (২১), খছরু মিয়ার স্ত্রী পারভিন(২০), জাকির হোসেনের স্ত্রী আঙরা বেগম বেগম(৪৫)। অপরদিকে পাঁচগাও পূজা মন্ডপ ও শ্রীমঙ্গল শহর থেকে ৪ জনকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতদের বাড়ী হবিগঞ্জ ও বাম্মনবাড়ীয়া জেলায় গ্রেফতারকৃতদের শনিবার মৌলভীবাজার কোর্টে প্রেরন করা হয়েছে।
কুলাউড়া থানা পুলিশ পূজা মন্ডপ ও শহরের দুই হোটেলে দুই দফা অভিযান চালিয়ে ২৫জন, রাজনগরে ১ জন ও শ্রীমঙ্গলে ৪ জন মহিলা এবং ১ জন পুরুষ চোরকে আটক করেছে। পুলিশ জানায় কুলাউড়া উপজেলার কাদিপুর ইউনিয়নের শিববাড়ী পূজা ম-প থেকে এক মহিলার স্বর্ণের চেইন চুরি কালে গত ১১ অক্টোবর শুক্রবার ৯ জন মহিলা চোরকে প্রথমে আটক করা হয়। তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী শহরের হানিফ ও বাদশাহী হোটেল থেকে অভিযান চালিয়ে আরো ১৬জন মহিলা ও ১ জন পুরুষকে আটক করা হয়। এ নিয়ে সর্বমোট আটকের সংখ্যা ২৬ জন। আটককৃতরা হলো ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ধরমন্ডল গ্রামের ফিরোজ মিয়ার স্ত্রী সকিনা (৩২), একই গ্রামের সুবহান মিয়ার স্ত্রী স্বপ্না বেগম (২৫), রবিউল আউয়ালের স্ত্রী আলসুমা বেগম, শরিফ মিয়ার স্ত্রী সুহেনা আক্তার (২০), সাজু মিয়ার স্ত্রী আসমা বেগম (২০), আলমগীর হোসেনের স্ত্রী রোজিনা বেগম (২৫), ফরিদ মিয়ার স্ত্রী হোসনা বেগম (৩২), মনির মিয়ার স্ত্রী রিনা বেগম (২৮), হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলার বাগেরসুরা গ্রামের আব্দুল আউয়ালের স্ত্রী হালিমা বেগম (৩২) ও তাজুল ইসলাম এর স্ত্রী বানেছা বেগম (৪৫)। অপরদিকে শনিবার ভোরে কুলাউড়া শহরের বাদশাহী ও হানিফ হোটেল থেকে আটককৃতরা হলো, মাধবপুর উপজেলার বাগেরসুরা গ্রামের মৃত ছবুর হোসের স্ত্রী মিনারা বেগম(৪৫) ও মেয়ে পারভিন আক্তার(১৮),একই গ্রামের রাজা মিয়ার স্ত্রী মেহের চাঁন(৩৫) ও মেয়ে নাজমিন আক্তার(১৮), হেলাল মিয়ার স্ত্রী সাহেনা বেগম(২৮), মোশারফ হোসেনের স্ত্রী রুজিনা বেগম(২২), মজনু মিয়ার স্ত্রী কুলছুমা বেগম(৩৫), বিল্লাল হোসেনের স্ত্রী সালমা বেগম(২১), জালাল মিয়ার স্ত্রী হোসনা বেগম (২৩), মৃত নুর মিয়ার মেয়ে সাহেদা খাতুন(৩০), শিবলু মিয়া (৪১), জোসনা বেগম(২৩)। ব্রাহ্মনবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ধরমন্ডল গ্রামের আক্কাছ মিয়ার স্ত্রী আলেমা বেগম(২৩), সালাউদ্দিনের স্ত্রী সুফিয়া বেগম (৩৫), আবু মিয়ার স্ত্রী মিতু বেগম (২১), খছরু মিয়ার স্ত্রী পারভিন(২০), জাকির হোসেনের স্ত্রী আঙরা বেগম বেগম(৪৫)। অপরদিকে পাঁচগাও পূজা মন্ডপ ও শ্রীমঙ্গল শহর থেকে ৪ জনকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতদের বাড়ী হবিগঞ্জ ও বাম্মনবাড়ীয়া জেলায় গ্রেফতারকৃতদের শনিবার মৌলভীবাজার কোর্টে প্রেরন করা হয়েছে। কুলাউড়া প্রতিনিধি॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •