কুলাউড়ায় ১৮ দলীয় জোটের পিকেটিং, মিছিল ও পথসভা

December 22, 2013, এই সংবাদটি ১৬২ বার পঠিত

কুলাউড়ায় ১৮দলীয় জোটের ডাকা ৭২ ঘন্টা অবরোধের ২য় দিনে ভোর ৬টা হতে ১৮দলীয় জোটের নেতৃবৃন্দ কুলাউড়ার প্রবশ পথে তিনটি পয়েন্টে পিকেটিং করে। সন্ধ্যা ৭টায় ১৮দলীয় জোটের নেতৃবৃন্দ কুলাউড়া চৌমুহনী চত্বরে বিশাল একটি মিছিল নিয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে পূনরায় চৌমুহনীতে এসে পথসভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত পথসভায় ১৮দলীয় জোটের যুগ্ম আহবায়ক ও উপজেলা জামায়াতে ইসলামের আমীর আব্দুল বারী মাষ্টারের সভাপতিত্বে ও উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এম এ মজিদ এর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারী সহকারী অধ্যাপক আব্দুল মুন্তাজিম, পৌর বিএনপির সভাপতি কাউন্সিলর শামীম আহমদ চৌধুরী, উপজেলা বিএনপির সহ সভাপতি মো: রওশন খান, উপজেলা জামায়াতের সাবেক সেক্রেটারী আব্দুন নুর, উপজেলা বিএনপির প্রচার সম্পাদক শেখ মো: শহীদুল ইসলাম, উপজেলা বিএনপির দপ্তর সম্পাদক মো: মইনুল হক বকুল, পৌর যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক ফয়জুর রহমান গোলাপ, পৌর শ্রমিকদলের সভাপতি মোঃ দুদু মিয়া, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক খন্দকার খালিছ মিয়া, বিএনপি নেতা আব্দুর রফিক রব, পৌর বিএনপি নেতা হোসেন মনসুরী সুমন ও সোহেল আহমদ, জেলা সাংস্কৃতিক আন্দোলনের যুগ্ম আহবায়ক ও উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক মুছা আহমদ সুয়েট, উপজেলা ছাত্র শিবিরের সভাপতি মো: নাজমুল ইসলাম, পৌর শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জব্বার বাবলু, সাবেক উপজেলা ছাত্রদল নেতা কাওসার আমীর বাবুল, পৌর সাংস্কৃতিক আন্দোলনের আহবায়ক আতিকুল ইসলাম, উপজেলা শ্রমিক দলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রহিম, সহ-প্রচার সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন ঢালী প্রমুখ। পথসভায় বক্তারা বলেন বিজয় দিবসের দিনে সাতক্ষিরায় রাতের আধাঁরে যৌত বাহিনী ও আওয়ামীলীগের ক্যাডার বাহিনী ধারা মানুষ হত্যা করে বিজয় দিবসের আনন্দকে কলঙ্কিত করেছে ও কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা এডভোকেট আবেদ রাজার নেতৃত্বে কুলাউড়ার প্রতিটি হাট বাজার ও গ্রামে গঞ্জে মানুষকে রাজপথে এসে আন্দোলন করে সৈরাচার হাসিনা সরকারকে হটিয়ে গনতন্ত্র সরকার প্রতিষ্টিত করার আহবান জানান। আরও উপস্থিত ছিলেন ১৮দলীয় জোট ও তার অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের সর্বস্থরের নেতৃবৃন্দ।
কুলাউড়ায় ১৮দলীয় জোটের ডাকা ৭২ ঘন্টা অবরোধের ২য় দিনে ভোর ৬টা হতে ১৮দলীয় জোটের নেতৃবৃন্দ কুলাউড়ার প্রবশ পথে তিনটি পয়েন্টে পিকেটিং করে। সন্ধ্যা ৭টায় ১৮দলীয় জোটের নেতৃবৃন্দ কুলাউড়া চৌমুহনী চত্বরে বিশাল একটি মিছিল নিয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে পূনরায় চৌমুহনীতে এসে পথসভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত পথসভায় ১৮দলীয় জোটের যুগ্ম আহবায়ক ও উপজেলা জামায়াতে ইসলামের আমীর আব্দুল বারী মাষ্টারের সভাপতিত্বে ও উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এম এ মজিদ এর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারী সহকারী অধ্যাপক আব্দুল মুন্তাজিম, পৌর বিএনপির সভাপতি কাউন্সিলর শামীম আহমদ চৌধুরী, উপজেলা বিএনপির সহ সভাপতি মো: রওশন খান, উপজেলা জামায়াতের সাবেক সেক্রেটারী আব্দুন নুর, উপজেলা বিএনপির প্রচার সম্পাদক শেখ মো: শহীদুল ইসলাম, উপজেলা বিএনপির দপ্তর সম্পাদক মো: মইনুল হক বকুল, পৌর যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক ফয়জুর রহমান গোলাপ, পৌর শ্রমিকদলের সভাপতি মোঃ দুদু মিয়া, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক খন্দকার খালিছ মিয়া, বিএনপি নেতা আব্দুর রফিক রব, পৌর বিএনপি নেতা হোসেন মনসুরী সুমন ও সোহেল আহমদ, জেলা সাংস্কৃতিক আন্দোলনের যুগ্ম আহবায়ক ও উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক মুছা আহমদ সুয়েট, উপজেলা ছাত্র শিবিরের সভাপতি মো: নাজমুল ইসলাম, পৌর শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জব্বার বাবলু, সাবেক উপজেলা ছাত্রদল নেতা কাওসার আমীর বাবুল, পৌর সাংস্কৃতিক আন্দোলনের আহবায়ক আতিকুল ইসলাম, উপজেলা শ্রমিক দলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রহিম, সহ-প্রচার সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন ঢালী প্রমুখ। পথসভায় বক্তারা বলেন বিজয় দিবসের দিনে সাতক্ষিরায় রাতের আধাঁরে যৌত বাহিনী ও আওয়ামীলীগের ক্যাডার বাহিনী ধারা মানুষ হত্যা করে বিজয় দিবসের আনন্দকে কলঙ্কিত করেছে ও কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা এডভোকেট আবেদ রাজার নেতৃত্বে কুলাউড়ার প্রতিটি হাট বাজার ও গ্রামে গঞ্জে মানুষকে রাজপথে এসে আন্দোলন করে সৈরাচার হাসিনা সরকারকে হটিয়ে গনতন্ত্র সরকার প্রতিষ্টিত করার আহবান জানান। আরও উপস্থিত ছিলেন ১৮দলীয় জোট ও তার অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের সর্বস্থরের নেতৃবৃন্দ। কুলাউড়া অফিস :

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •