মৌলভীবাজারে রাস্তা অবরোধ : দেশে যে সংঘাত ও সংঘর্ষের পরিস্থিতি বিরাজ করছে তার জন্য স্বৈরাচারী সরকারই এককভাবে দায়ী——এম নাসের রহমান

December 24, 2013, এই সংবাদটি ২৩০ বার পঠিত

নির্দলীয় সরকার এবং একতরফা নির্বাচন বাতিলের দাবিতে ১৮ দলীয় জোটের ডাকা টানা ৮৩ ঘন্টা অবরোধ ৩য় দিনে ২৩ ডিসেম্বর মৌলভীবাজারে শান্তিপূর্নভাবে পালিত হয়েছে। ভোর ৬টা থেকে শহরের ৪টি স্পটে রাস্তা অবরূধ করে মিছিল সমাবেশ করে বিএনপি, জামায়াত, জমিয়ত, যুবদল, ছাত্রদল, ছাত্রশিবির, ছাত্রজমিয়তের নেতা কমীরা। শহরের চাঁদনীঘাট, শমসের নগর রোড, ওয়াপদা পয়েন্ট ও উপজেলা চত্বরে থেকে দুপুর ১২টায় পৃথক পৃথক মিছিল নিয়ে পৌরসভা চত্বরে সমাবেশে মিলিত হয়ে এম নাসের রহমানের নেতৃত্বে বিশাল মিছিল মৌলভীবাজারের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদিক্ষণ করে কুসুমবাগ পয়েন্টে গিয়ে রাস্তা অবরোধ করে সমাবেশে মিলিত হয়। দেশে যে সংঘাত ও সংঘর্ষের পরিস্থিতি বিরাজ করছে তার জন্য স্বৈরাচারী সরকারই এককভাবে দায়ী প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন ১৮দলীয় সংগ্রাম কমিটি মৌলভীবাজার জেলা সংগ্রাম কমিটির আহ্বায়ক ও মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি এম নাসের রহমান। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ১৮দলীয় সংগ্রাম কমিটি মৌলভীবাজার জেলা সংগ্রাম কমিটির যুগ্ন আহ্বায়ক ও মৌলভীবাজার জেলা জামায়াতের আমীর আব্দুল মান্নান, বিএনপির প্রথম যুগ্ন সম্পাদক ও মৌলভীবাজার জেলা সংগ্রাম কমিটির সদস্য সচিব আব্দুল মুকিত, ইউসুফ আলী, এডভোকেট মুজিবুর রহমান, এড,গবীন্দ; মহল পাল, জমিয়তের সহ সাধারণ সম্পাদক শাহ মাশুকুর রশিদ, সদর থানা বিএনপির আহ্বায়ক মৌলভী আব্দুল ওয়ালী সিদ্দিকী, জামায়াতের পৌর আমীর ইয়ামীর আলী, সদর উপজেলা আমীর আলাউদ্দিন শাহ, বিএনপির পৌর আহ্বায়ক এডভোকেট আনোয়ার আক্তার চৌধুরী শিউলী, সদর থানা বিএনপির সহ সভাপতি আলহাজ্ব আনসার মিয়া, সদর থানা বিএনপির যুগ্ন আহ্বায়ক মোঃ ফখরুল ইসলাম, যুবদল নেতা মতিন বক্স, মুজিবুর রহমান মজনু, হেলু মিয়া, মোবারক হোসেন, শ্রমিক নেতা আনোয়ার হোসেন, রুফকুল ইসলাম রসিক, সেলিম আহমদ, ছাত্রশিবির সভাপতি হাফেজ তাজুল ইসলাম, দেলোওয়ার হোসেন, ছাত্রদল নেতা আলী ছবদর খান বাবর প্রমুখ। সমাবেশে বক্তারা বলেন সরকার জনগণের আন্দোলন দমনের জন্য ১৮ দলীয় জোটের নেতা-কর্মীদের ওপর গণহত্যা, গণগ্রেফতার, জ্বালাও-পোড়াও এবং নেতা-কর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর চালিয়ে আন্দোলন দমন করতে পারছে না।
নির্দলীয় সরকার এবং একতরফা নির্বাচন বাতিলের দাবিতে ১৮ দলীয় জোটের ডাকা টানা ৮৩ ঘন্টা অবরোধ ৩য় দিনে ২৩ ডিসেম্বর মৌলভীবাজারে শান্তিপূর্নভাবে পালিত হয়েছে। ভোর ৬টা থেকে শহরের ৪টি স্পটে রাস্তা অবরূধ করে মিছিল সমাবেশ করে বিএনপি, জামায়াত, জমিয়ত, যুবদল, ছাত্রদল, ছাত্রশিবির, ছাত্রজমিয়তের নেতা কমীরা। শহরের চাঁদনীঘাট, শমসের নগর রোড, ওয়াপদা পয়েন্ট ও উপজেলা চত্বরে থেকে দুপুর ১২টায় পৃথক পৃথক মিছিল নিয়ে পৌরসভা চত্বরে সমাবেশে মিলিত হয়ে এম নাসের রহমানের নেতৃত্বে বিশাল মিছিল মৌলভীবাজারের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদিক্ষণ করে কুসুমবাগ পয়েন্টে গিয়ে রাস্তা অবরোধ করে সমাবেশে মিলিত হয়। দেশে যে সংঘাত ও সংঘর্ষের পরিস্থিতি বিরাজ করছে তার জন্য স্বৈরাচারী সরকারই এককভাবে দায়ী প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন ১৮দলীয় সংগ্রাম কমিটি মৌলভীবাজার জেলা সংগ্রাম কমিটির আহ্বায়ক ও মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি এম নাসের রহমান। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ১৮দলীয় সংগ্রাম কমিটি মৌলভীবাজার জেলা সংগ্রাম কমিটির যুগ্ন আহ্বায়ক ও মৌলভীবাজার জেলা জামায়াতের আমীর আব্দুল মান্নান, বিএনপির প্রথম যুগ্ন সম্পাদক ও মৌলভীবাজার জেলা সংগ্রাম কমিটির সদস্য সচিব আব্দুল মুকিত, ইউসুফ আলী, এডভোকেট মুজিবুর রহমান, এড,গবীন্দ; মহল পাল, জমিয়তের সহ সাধারণ সম্পাদক শাহ মাশুকুর রশিদ, সদর থানা বিএনপির আহ্বায়ক মৌলভী আব্দুল ওয়ালী সিদ্দিকী, জামায়াতের পৌর আমীর ইয়ামীর আলী, সদর উপজেলা আমীর আলাউদ্দিন শাহ, বিএনপির পৌর আহ্বায়ক এডভোকেট আনোয়ার আক্তার চৌধুরী শিউলী, সদর থানা বিএনপির সহ সভাপতি আলহাজ্ব আনসার মিয়া, সদর থানা বিএনপির যুগ্ন আহ্বায়ক মোঃ ফখরুল ইসলাম, যুবদল নেতা মতিন বক্স, মুজিবুর রহমান মজনু, হেলু মিয়া, মোবারক হোসেন, শ্রমিক নেতা আনোয়ার হোসেন, রুফকুল ইসলাম রসিক, সেলিম আহমদ, ছাত্রশিবির সভাপতি হাফেজ তাজুল ইসলাম, দেলোওয়ার হোসেন, ছাত্রদল নেতা আলী ছবদর খান বাবর প্রমুখ। সমাবেশে বক্তারা বলেন সরকার জনগণের আন্দোলন দমনের জন্য ১৮ দলীয় জোটের নেতা-কর্মীদের ওপর গণহত্যা, গণগ্রেফতার, জ্বালাও-পোড়াও এবং নেতা-কর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর চালিয়ে আন্দোলন দমন করতে পারছে না। স্টাফ রিপোর্টার॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •