কুলাউড়ায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বন্ধ হলো বাল্যবিবাহ

July 10, 2013, এই সংবাদটি ২৭৭ বার পঠিত

কুলাউড়া উপজেলার টিলাগাওস্থ তাহির আলী কমিউনিটি সেন্টারে গত ৭ জুলাই প্রশাসনের উদ্যোগে একটি বাল্যবিবাহ বন্ধ করা হয়েছে। জানা যায়, পৃথিমপাশা ইউনিয়নের ধামুলী গ্রামের ইদ্রিছ আলীর মেয়ে গণকিয়া মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী রুমেনা আক্তারকে ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়নের আদমপুর গ্রামের আছদ্দর আলীর ছেলে মইনুল ইসলামের সঙ্গে বিবাহ দিতে চাইলে কুলাউড়া উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সেলিনা ইয়াসমিনের নেতৃত্বে কুলাউড়া থানার এসআই কমলসহ ফোর্স ঘটনাস্থলে পৌঁছে বিবাহ বন্ধ করতে সক্ষম হন। এএসআই কমল মালাকার জানান, উভয় পক্ষ লিখিত অঙ্গীকারনামায় বিয়ে ১৮ বছরের আগে দেবে না বলে স্বাক্ষর করেছে।
কুলাউড়া উপজেলার টিলাগাওস্থ তাহির আলী কমিউনিটি সেন্টারে গত ৭ জুলাই প্রশাসনের উদ্যোগে একটি বাল্যবিবাহ বন্ধ করা হয়েছে। জানা যায়, পৃথিমপাশা ইউনিয়নের ধামুলী গ্রামের ইদ্রিছ আলীর মেয়ে গণকিয়া মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী রুমেনা আক্তারকে ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়নের আদমপুর গ্রামের আছদ্দর আলীর ছেলে মইনুল ইসলামের সঙ্গে বিবাহ দিতে চাইলে কুলাউড়া উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সেলিনা ইয়াসমিনের নেতৃত্বে কুলাউড়া থানার এসআই কমলসহ ফোর্স ঘটনাস্থলে পৌঁছে বিবাহ বন্ধ করতে সক্ষম হন। এএসআই কমল মালাকার জানান, উভয় পক্ষ লিখিত অঙ্গীকারনামায় বিয়ে ১৮ বছরের আগে দেবে না বলে স্বাক্ষর করেছে। কুলাউড়া অফিস :

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •