হবিগঞ্জে দুই গ্রামের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ৩০

January 20, 2014, এই সংবাদটি ১০৯ বার পঠিত

হবিগঞ্জ সদর উপজেলার গোপায়া বাজারে রাঙ্গেরগাঁও এবং তেতৈয়া গ্রামের মধ্যে এক সংঘর্ষে ৩০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে ৭ জনকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার রাত সাড়ে ৭টায় এ ঘটনা ঘটে। সদর উপজেলার মশাজান এলাকায় খোয়াই নদী থেকে তেতৈয়া গ্রামের সোহেলের ট্রাক্টরের মাধ্যমে অন্যদের মতো বালু উত্তোলন করে বিক্রি করে আসছে। গত ১৬ই জানুয়ারি বালু উত্তোলন করে নিয়ে যাওয়ার সময় সোহেলের গাড়ির ট্রাক্টর চালককে রাঙ্গেরগাঁও গ্রামের তাহির মিয়া মারধর করে। এ নিয়ে দুই গ্রামের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিলে সালিশের আয়োজন করা হয়। শনিবার রাতে গোপায়া বাজারের ইউপি মেম্বার আফিল উদ্দিনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে উভয় গ্রামের লোকজন সালিশে বসে। সালিশ শুরুর কিছুক্ষণের মধ্যে উভয় পক্ষ কথা কাটাকাটি শুরু হয়। একপর্যায়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে রাঙ্গেরগাঁও এবং তেতৈয়া গ্রামের লোকজন। প্রায় ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষে গিয়াস উদ্দিন, রুবেলসহ কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়। এ নিয়ে রাতে আবারও সালিশের উদ্যোগ নেয়া হলে তেতৈয়া গ্রাম সালিশে বসতে রাজি হলেও রাঙ্গেরগাঁওয়ের লোকজন আলোচনায় বসতে রাজি হয়নি। এ নিয়ে উভয় গ্রামের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

হবিগঞ্জ সদর উপজেলার গোপায়া বাজারে রাঙ্গেরগাঁও এবং তেতৈয়া গ্রামের মধ্যে এক সংঘর্ষে ৩০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে ৭ জনকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার রাত সাড়ে ৭টায় এ ঘটনা ঘটে। সদর উপজেলার মশাজান এলাকায় খোয়াই নদী থেকে তেতৈয়া গ্রামের সোহেলের ট্রাক্টরের মাধ্যমে অন্যদের মতো বালু উত্তোলন করে বিক্রি করে আসছে। গত ১৬ই জানুয়ারি বালু উত্তোলন করে নিয়ে যাওয়ার সময় সোহেলের গাড়ির ট্রাক্টর চালককে রাঙ্গেরগাঁও গ্রামের তাহির মিয়া মারধর করে। এ নিয়ে দুই গ্রামের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিলে সালিশের আয়োজন করা হয়। শনিবার রাতে গোপায়া বাজারের ইউপি মেম্বার আফিল উদ্দিনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে উভয় গ্রামের লোকজন সালিশে বসে। সালিশ শুরুর কিছুক্ষণের মধ্যে উভয় পক্ষ কথা কাটাকাটি শুরু হয়। একপর্যায়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে রাঙ্গেরগাঁও এবং তেতৈয়া গ্রামের লোকজন। প্রায় ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষে গিয়াস উদ্দিন, রুবেলসহ কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়। এ নিয়ে রাতে আবারও সালিশের উদ্যোগ নেয়া হলে তেতৈয়া গ্রাম সালিশে বসতে রাজি হলেও রাঙ্গেরগাঁওয়ের লোকজন আলোচনায় বসতে রাজি হয়নি। এ নিয়ে উভয় গ্রামের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

 à¦¸à§à¦Ÿà¦¾à¦« রিপোর্টার॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •