মৌলভীবাজারে শীতজনিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা

January 11, 2014, এই সংবাদটি ১৯৭ বার পঠিত

ঘন কুয়াশা এবং তীব্র শীতের কারণে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে হাঁপানি, শ্বাসকষ্ট, ডায়রিয়া, নিউমোনিয়াসহ শীতজনিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত শিশুর সংখ্যা বাড়ছে। ১০ জানুয়ারি শুক্রবার শহরের সদর হাসপাতাল ঘুরে এমনই চিত্র দেখা গেছে।এদিকে প্রতিদিনই ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে সদর হাসপাতালে শিশু ও নারী-পুরুষ মিলে বর্হিবিভাগে প্রায় ৩০০ রোগী চিকিৎসা নিতে আসছেন।এদের মধ্যে আশঙ্কাজনক রোগীদের হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া হাসপাতালের শিশু বিভাগে রোগী বেশি থাকায় বারান্দায় বসেও চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।সদর হাসপাতালের সিনিয়র নার্স নাজমা বেগম জানান, ঠান্ডাজনিত রোগের কারণে ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়া রোগীর সংখ্যা বেড়েছে।সদর হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ আব্দুল্লা আল বাকি জানান, ঠান্ডা জনিত কারণে হাঁপানি, শ্বাসকষ্ট, ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়ায় আক্রান্তরা বেশি আসছেন।এসব রোগীদের খাবার স্যালাইন, সিরাপ, ইনজেকশন দেওয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।
ঘন কুয়াশা এবং তীব্র শীতের কারণে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে হাঁপানি, শ্বাসকষ্ট, ডায়রিয়া, নিউমোনিয়াসহ শীতজনিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত শিশুর সংখ্যা বাড়ছে। ১০ জানুয়ারি শুক্রবার শহরের সদর হাসপাতাল ঘুরে এমনই চিত্র দেখা গেছে।এদিকে প্রতিদিনই ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে সদর হাসপাতালে শিশু ও নারী-পুরুষ মিলে বর্হিবিভাগে প্রায় ৩০০ রোগী চিকিৎসা নিতে আসছেন।এদের মধ্যে আশঙ্কাজনক রোগীদের হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া হাসপাতালের শিশু বিভাগে রোগী বেশি থাকায় বারান্দায় বসেও চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।সদর হাসপাতালের সিনিয়র নার্স নাজমা বেগম জানান, ঠান্ডাজনিত রোগের কারণে ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়া রোগীর সংখ্যা বেড়েছে।সদর হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ আব্দুল্লা আল বাকি জানান, ঠান্ডা জনিত কারণে হাঁপানি, শ্বাসকষ্ট, ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়ায় আক্রান্তরা বেশি আসছেন।এসব রোগীদের খাবার স্যালাইন, সিরাপ, ইনজেকশন দেওয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি। à¦®à¦¾à¦¹à¦¬à§à¦¬à§à¦° রহমান রাহেল॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •