কাদিপুরে নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান জাফর আহমদ গিলমান এর দায়িত্বভার গ্রহণ

January 18, 2022,

কুলাউড়া প্রতিনিধি॥ কুলাউড়া উপজেলার কাদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান জাফর আহমদ গিলমান এর দায়িত্বভার গ্রহণ অনুষ্ঠান কাদিপুর ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়।
১৭ জানুয়ারী সোমবার বিকেলে কাদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাফর আহমদ গিলমান এর সভাপতিত্বে ও ছমির আহমদের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম রেনু।
প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুলাউড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ এ কে এম সফি আহমদ সলমান।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক পৌর কাউন্সিলর ইকবাল আহমদ শামীম, মুক্তিযোদ্ধা আজির উদ্দিন, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আবুল খয়ের মাস্টার, প্রথম শ্রেণীর ঠিকাদার খালেদ আহমদ, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি নিয়াজুল তায়েফ প্রমুখ।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন কৃষকলীগ নেতা ফুয়াদ আলম চৌধুরী, সমাজসেবক আবুর মনসুর রাজন, আলী হায়দার রাজন, রবি মল্লিক, ছাত্রলীগ নেতা সামছুল ইসলাম, তানিম ইকবাল চৌধুরী, কাদিপুর যুব সমাজের সাধারন সম্পাদক নাহিদ চৌধুরী প্রমুখ।
প্রধান বক্তার বক্তব্যে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ একেএম সফি আহমদ সলমান বলেন, কাদিপুর ইউনিয়নে আমি সাড়ে আটারো বছর চেয়ারম্যান ছিলাম, এর আগে আমার মরহুম বড় ভাই মোছাদ্দিক আহমদ নোমান এই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছিলেন। এখন আমার ছোট ভাই জাফর আহমদ গিলমান এই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছে। আমার গোটা পরিবার আজীবন এই ইউনিয়নের মানুষের সেবা করে যাবো ইনশাল্লাহ। তিনি কাদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান ছালামের গত ৫ বছরের ফিরিস্তি তুলে ধরে বলেন, ৫ বছরে কাদিপুরে ইয়াবা ও ফেন্সিডিল ব্যবসার ব্যাপক প্রসার ঘটিয়েছেন চেয়ারম্যান ছালাম, তার সাঙ্গ পাঙ্গরা এমন কোন কুকর্ম নেই যার সাথে তারা জড়িত নহে। পুলিশের কাছে একাধিকবার ধরাও পড়েছে, এই ইউয়িনের মর্যাদা তারা ক্ষুন্ন করেছে।
ইউনিয়ন তথ্য কেন্দ্রে সীমাহীন অনিয়ম ও দূর্ণীতি করা হয়েছে, ইউনিয়নের সাধারন মানুষ যাতে নির্যাতিত না হয় এবং অসহায় মানুষের পক্ষে কাজ করার জন তিনি নব নির্বাচিতদের অনুরোধ করেন।
উল্লেখ্য, তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত কুলাউড়ায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী ১২ জন চেয়ারম্যানসহ সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ও সাধারণ আসনের সদস্যরা শপথ নিয়েছেন ১৭ জানুয়ারি সোমবার দুপুরে। কুলাউড়ায় নব নির্মিত জেলা পরিষদ অডিটরিয়াম হলরুমে এ শপথ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। তবে আইনী জটিলতা থাকায় কুলাউড়া সদর ইউনিয়নের নির্বাচিতদের শপথ গ্রহণ হয়নি।
জানা যায়, কুলাউড়া উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নের নির্বাচন গত ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হয়। নব নির্বাচিতদের শপথের সম্ভাব্য তারিখ ছিলো গত ৪ জানুয়ারি। কিন্তু কুলাউড়া সদর ইউনিয়নের পরাজিত প্রার্থী ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান নার্গিস আক্তার বুবলী ভোট কারচুপির অভিযোগ এনে উচ্চ আদালতে একটি রিট পিটিশন নং ১২৪৩৩/২০২১ দায়ের করেন। এর প্রেক্ষিতে উপজেলার ১৩ ইউনিয়নের নির্বাচিতদের শপথ গ্রহণের তারিখ স্থগিত করা হয়। আইনী জটিলতা থাকায় গত ৯ জানুয়ারি নির্বাচন কমিশন কুলাউড়া সদর ইউনিয়ন বাকি রেখে বাকি বরমচাল, ভূকশিমইল, ভাটেরা, জয়চন্ডী, ব্রাহ্মণবাজার, কাদিপুর, রাউৎগাঁও, টিলাগাঁও, হাজীপুর, শরীফপুর, পৃথিমপাশা ও কর্মধা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত ও সাধারণ ওয়ার্ডের সদস্য পদে নির্বাচিতদের শপথ আয়োজনের জন্য জেলা প্রশাসক বরাবরে চিঠি দেয়া হয়। ওই চিঠির আলোকে ১৭ জানুয়ারি ১২ ইউনিয়নের নির্বাচিতদের শপথ অনুষ্ঠানে আয়োজন করে কুলাউড়া উপজেলা প্রশাসন। সোমবার ওই ১২ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, সাধারণ সদস্য ও সংরক্ষিত নারী সদস্যসহ মোট ১৫৬ জন বিজয়ী শপথ গ্রহণ করেন। চেয়ারম্যানদের শপথবাক্য পাঠ করান ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক তানিয়া সুলতানা এবং সাধারণ সদস্য ও সংরক্ষিত নারী সদস্যদের শপথ পাঠ করান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এটি এম ফরহাদ চৌধুরী।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”

মন্তব্য করুন

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com