কেন মুক্তানগর রিসোর্টে গুলি

August 13, 2022,

স্টাফ রিপোর্টার॥ বন্দুকের গুলির শব্দে হঠাৎ করে কেঁপে উঠল মৌলভীবাজারে অবস্থিত মুক্তানগর রিসোর্ট। শুক্রবার ১২ জুলাই বিকেল ৫টার দিকে এই ঘটনার পর আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে ওই বিনোদন কেন্দ্রে বেড়াতে আসা আগত দর্শনার্থী ও আশপাশের মানুষের মধ্যে। এতে জড়িত থাকার অভিযোগে ঘটনাস্থল থেকে চার যুবককে আটক করেছে শেরপুর ফাঁড়ি পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার খলিলপুর ইউনিয়নের নাদামপুর গ্রামে শেখ জাবেদ আহমদ রনি নামে এক প্রবাসী মুক্তানগর নামে ওই রিসোর্ট তৈরি করেন। গ্রামীণ পরিবেশে নির্মিত এই বিনোদন কেন্দ্রে প্রতিদিন বিভিন্ন বয়সের, বিভিন্ন স্থানের শত শত দর্শনার্থী ভিড় করেন। শুক্রবারও কুশিয়ারার নদের তীরে এই নান্দনিক রিসোর্ট দেখতে এসে সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরের আবদুল গাফ্ফারে ছেলে রিপন আহমদ, কুমারকালার তাজ উদ্দিন আহমদের ছেলে মিজানূর রহমান, ইকরচরের তৈয়ব উদ্দিনের ছেলে মাজহারুল ইসলাম, সিলেটের গোলাপগঞ্জের সালেহ আহমদের ছেলে জাহিদ আহমেদ নারীদের জন্য সংরক্ষিত সুইমিংপুলে সাঁতার কাটতে নামেন। নিরাপত্তারক্ষীরা তাদের সেখান থেকে উঠে যেতে বললে তারা বাকবিতন্ডায় জড়ান এবং শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন। এক পর্যায়ে হাল্ল  চিৎকারে হট্টগোল বেঁধে গেলে রিসোর্টের মালিক শেখ জাবেদ তার লাইসেন্স করা পিস্তল দিয়ে তিন রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়েন। এতে তাৎক্ষণিকভাবে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি নীরব হয়ে যায়। শেখ জাবেদ বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য ফাঁকা গুলি করা হয়। এতে কেউ হতাহত হননি। অভিযুক্ত চার যুবককে পুলিশে দেওয়া হয়েছে।

মৌলভীবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াছিনুল হক এর সাথে রাত ৮ টার দিকে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, মুক্তানগর রিসোর্টের ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •