শিক্ষার্থীদের বরণ করতে প্রস্তুত শ্রীমঙ্গলের প্রতিটি বিদ্যালয়

September 11, 2021, এই সংবাদটি ৪৩ বার পঠিত

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি॥ দীর্ঘ দেড় বছর বন্ধ থাকার পর আগামীকাল ১২ সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ৫ সেপ্টেম্বর সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সভাপতিত্বে আন্তমন্ত্রণালয়ের বৈঠক এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
এদিকে শ্রীমঙ্গল উপজেলার সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষার্থীদের বরণ করে নিতে প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে শ্রেণিকক্ষে দূরত্ব বজায় রেখে পাঠদানের ব্যবস্থা করা হয়েছে প্রতিটি ক্লাসরুমে।
শনিবার ১১ সেপ্টেম্বর দুপুরে উপজেলার ভোজপুর বাজারে অবস্থিত আছিদউল্লা উচ্চ বিদ্যালয়ে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির নেতৃবৃন্দের বৈঠক চলছে।
জানতে চাইলে এসময় স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অর্ধেন্দু কুমার দেব জানান, শ্রেণিকক্ষ থেকে শুরু করে স্বাস্থ্যবিধি প্রতি পালনের ব্যাপারে স্কুলের কেমন প্রস্তুতি রয়েছে সেটা দেখার জন্য এসেছি। আমাদের শিক্ষকরা স্বাস্থ্যবিধির বিষয়টি প্রাধান্য দিয়ে প্রতিটি ক্লাসরুম পাঠদানের উপযোগী করেছেন। পাশাপাশি যেহেতু দীর্ঘদিন পর স্কুল খুলছে তাই শিক্ষার্থীদের স্কুলমুখী করার লক্ষ্যে বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, আমরা শিক্ষকদের সাথে আলোচনা করেছি আপাতত পাঠদান নিয়ে শিক্ষার্থীদের কোন প্রকার চাপ দেয়া হবে না। তাদের সাথে বন্ধুসুলভ আচরণ করে স্কুলমুখী করাই এখন আমাদের মূল লক্ষ্য। তখন স্কুলের প্রধান শিক্ষক পান্নালাল বর্ধনসহ সকল শিক্ষক-শিক্ষিকাগণ উপস্থিত ছিলেন।
উপজেলার সিন্দুরখান ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী এলাকায় অবস্থিত কুঞ্জবন প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, প্রতিটি শ্রেণিকক্ষ পরিপাটি করে সাজানো হয়েছে। সবকটি শ্রেণিকক্ষ ধুয়ে জীবাণুনাশক ছিটানো হয়েছে। স্কুলের সিঁড়ির সামনে হাত ধোয়ার জন্য পানি ও সাবানের ব্যবস্থা রাখা আছে।
শ্রেণিকক্ষে সরকার নির্ধারিত দূরত্ব বজায় রেখে সিটগুলো বসানো হয়েছে। স্কুলের প্রধান শিক্ষক একরামুল কবির বলেন, দীর্ঘদিন পর কোমলমতি শিক্ষার্থীদের স্কুলে পাঠদান করাতে পারবো এটা ভেবে বেশ আনন্দ লাগছে। স্কুল খুলে দেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ।
শ্রীমঙ্গল উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম প্রতিদিনের সংবাদকে জানান, আমরা প্রতিটি স্কুলের শিক্ষকদের সাথে কথা বলেছি। বিশেষ করে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনের বিষয়টিকে গুরুত্ব দেয়ার জন্য। অভিভাবকরা বাচ্চাদের স্কুলে পাঠানোর সময় যেন স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করেন সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে। তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়মুখী করার বিষয়টি জোর দেয়ার জন্য সবাইকে বলা হয়েছে। রুটিন অনুযায়ী ২০২১-২২ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীরা প্রত্যেক দিন বিদ্যালয়ে যাবেন। এছাড়া অন্যান্য ক্লাস একদিন চলবে।
একইভাবে প্রাথমিকের পঞ্চম শ্রেণি প্রতিদিন এবং অন্যান্য ক্লাস সপ্তাহে একদিন চলবে বলেও জানান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম।
উল্লেখ্য,গত বছর ৮ মার্চ দেশে করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার পর ১৭ মার্চ থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়। দফায় দফায় বাড়িয়ে সম্প্রতি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় ১১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •