শোকের মাসে বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিচারণে শ্রীমঙ্গলের দুই মুক্তিযোদ্ধা

August 31, 2021, এই সংবাদটি ১০০ বার পঠিত

বিকুল চক্রবর্তী॥ যেভাবে দেখেছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সেই স্মৃতি নতুন প্রজন্মকে জানাতে গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে সেই স্মৃতিচারণে মিলিত হন মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলেরর দুই মুক্তিযোদ্ধা।
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে শ্রীমঙ্গল শহর তলীর বারিধারা আবাসিক এলাকায় এই স্মৃতি চারণে অংশনেন মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আবু শহীদ মোঃ আবদুল্লাহ ও মুক্তিযোদ্ধা বিরাজ সেন তরুণ। স্মৃতি চারন করতে গিয়ে তারা বলেন, ঢাকায় ও শ্রীমঙ্গলে একাধিকবার তারা বঙ্গবন্ধুর সাক্ষাৎ পান। ১৯৭৪ সালের ৩১ ডিসেম্বর শ্রীমঙ্গল সরকারী কলেজে ছাত্রলীগের পুরো প্যানেল বিজয়ী হয়। এই পুরো প্যানেলই ১৯৭৫ সালের ১২ই আগষ্ট ঢাকায় গণভবনের বঙ্গবন্ধুর সাথে দেখা করেন। তারা বলেন তাদের এই বিজয়ে বঙ্গবন্ধু সেদিন তাদের ৯শ টাকা উপহার দেন। এর পর ১৫ আগষ্ট পর্যন্তই তারা ঢাকায় ছিলেন। সে বঙ্গবন্ধুকে যে দিন হত্যা করা হয় সেদিন তারা ধানমন্ডিতেই আরেকটি বাসায় ছিলেন। বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছে এটি শোনার পর তারা বাক রুদ্ধ হয়ে গিয়েছিলেন। অনেক কষ্টে লুকিয়ে ঢাকা থেকে তারা শ্রীমঙ্গল আসেন। কিন্তু শ্রীমঙ্গল আসার পর ৭১ এর পরাচক্র তাদের ধরতে উঠে পড়ে লাগে। এক পর্যায়ে পুলিশ আবু শহীদ আব্দুল্লাহকে ধরে ফেলে। আর বিরাজ সেন তরুণ আবু শহীদ আব্দুল্লাহকে ধরার পর আত্মগোপন করেন অন্যের বাসায়। পুলিশ বিরাজ সেন তরুণের বাসায় একাধিকবার তল্লাসী চালায়। এ সময় আটক হন, মুক্তিযোদ্ধা মোহন সোম ও মুক্তিযোদ্ধা ইসমাইল হোসেনসহ ৫/৬ জন। এর পর বিরাজসেন তুরুণ পালিয়ে যান ভারতে। সেখান থেকে কাদের বাহিনীতে যোগ দেন। আর ৬/৭ মাস জেল কেটে ছাড়া পান আবু শহীদ আব্দুল্লাহ।
এ স্মৃতিচারণ সভায় উপজেলার একাধিক কলেজ স্টুডেন্ট ছাড়াও বিভিন্ন পিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •