কবিতা-ছড়া

আবার আসিব ফিরে

মোঃ আবু তাহের॥ যেতে নাহি মন চায়,তবু যেতে হয়, অজানা অচেনা,দূরে বহু দূরে হিম শীতল,সাদা তুষারে ঢাকা, উঁচু নীচু পাথরের পাহাড়, বহু জাতির দেশ,কানাডায়। দ্বারে দাঁড়িয়ে পথ রুদ্ধ করে ছোট ‘রাক্কিবা’জিঙ্গাসে চুপে, দাদা,কোন দিন আসিবে ঘুরে। আসিব ফিরে দু’বছর...

ঈদের খুশি

আকিব শিকদার॥ ঈদ এসেছে, ঈদ এসেছে, ঈদ এসেছে ঐ-রে ফিন্নি-পায়েস, মাংশ-রুটি, নতুন জামা কই-রে আতর গোলাপ ছড়াছড়ি, বোতল ভরে সুরমা আন জায়নামাজে নামাজ শেষে আলিঙ্গনে মাতবে প্রাণ। এবার ঈদে নতুন কেনা রঙ্গিন রঙ্গা পাঞ্জাবী ঠিক করেছি দান করবো কাজের...

কিচির মিচির

শামীমা রিতু॥ নীল আকাশে ডানা মেলে উড়ে বকের ছানা বিলের মাঝে যখন নামে ধরতে তদের মানা । ফিঙেটা মনের সুখে বসে আছে ডালে চারিদিকে কিচির মিচির করছে টুনির পালে । বাবুই পাখি বুনছে বাসা তালগাছের পাতায় ঘাসফড়িং তিড়িং বিড়িং...

হারানো সে দিনগুলি

শামীমা রিতু॥ কোথায় যেনো হারিয়ে গেলো সোনামাখা সে দিনগুলি, সারাদিন দলবেঁধে খেলা আনমনে ঘুরে বেড়ানো, চিন্তাহীন সারাবেলা। রাতের তারা ভরা আকাশ জোছনার মতো ঝরে পড়া- নানুর সেই গল্পগুলো কোথায় যেনো হারালো, হয়ে গেল সব এলোমেলো। আজ আর নেই উন্মুক্ত...

ধলাই নদীর বাঁকে

শামীমা এম রিতু॥ মনটা আবার যেতে চায় ধলাই নদীর তীরে হাঁটতে চাই খালি পায়ে নিটোল বালুচরে। যেথায় আছে শৈশব কৈশোর সোনারঙা দিন মনিমালা গরলজলে সেথায় আছে বিলীন। আভখ খেতের পাখির ডাকে আকুল হওয়া হৃদয় নীল আকাশে গাঙচিলের দল নীরব...

বাসন্তী গোধূলি

শামীমা এম রিতু॥ বায়ু বহে ঝিরি ঝিরি পৃথিবীর প’রে গোধূলি ছড়ায় রং প্রান্তরে প্রান্তরে । কৃষ্ণচূড়ার ফাঁকে ফাঁকে দেখা তেয় আভা ধরণী হয়ে উঠে লাবণ্য প্রভা। পাখির ঝাঁক ফিরে চলে আপন নীড়ে উঁকি দেয় সন্ধ্যাতারা নক্ষত্রের ভীড়ে। বাসন্তী গোধূলি...

‘বিজয় এলো’

শামীমা রিতু॥ বিজয় এলো নীল আকাশে বিজয় এলো সবুজ ঘাষে বিজয় এলো মুক্ত প্রয়াসে বাংলা মায়ের বুকেতে। চাঁদনী রাতে মধুমতীতে লাখো শহীদের রক্তে একাত্তরের জননীর অশ্রুতে আসলো বিজয় সবার তরে। বিজয় এলো পদ্মঝিলে বাংলার কোলে খালেবিলে সবুজ বন বনানীর...

হিম শীত

শামীমা রিতু॥ আসিয়াছে হিম শীত অগ্রহায়ণ পরে পশুপাখি তরলতা কাঁপে থরেথরে! শীতল বায়ু বহে ক্ষেপিয়া উত্তরের পথে বসন্ত যে চাহিয়া আছে গমণেরো রথে! কুয়াশা ঘেরা প্রান্তরে এ কোন অপরূপ শোভা বিষাদ হরিষঘেরা ছড়ায়ে আলোক প্রভা। নীরবে একা বসি কৃষ্ণচূড়া...

“জারুল ফুল “

শামীমা রিতু॥ জারুল ফুল জারুল ফুল মন ভুলানো তুমি আলতো ছোঁয়ায় উদাস।করো কেমনে থাকি আমি।। অপরূপা রঙের বাহার পাঁপড়ি দিয়ে ঘেরা সবুজ পাতায় রানী তুমি ব্যাকুল হৃদয় কাড়া।। বোশেখ মাসে আসো তুমি পবনে যাও ঝরে জারুল তোমার মোহমায়ায় গিয়েছি...

করোনাকে ভেবো না নির্বোধ

মাহমুদুল হাসান উজ্জ্বল॥ করোনার ভয় নেই বাঙালী আমরা গণ্ডারের মত গাঢ় শরীরের চামড়া। তামাকপাতা পান বিড়ি এসব খাই রোজ নেশাদ্রব্যে রক্ত কণায় জমে আছে পুঁজ। হরহামেশা শ্বাসপ্রশ্বাসে ধুলোর আনাগোনা এমন দেহে করোনাও ভয়ে আসতে মানা। এমন ভাবনা যাদের আছে...