আদালতের নির্দেশনায় কমলগঞ্জে  ব্যবসায়ীর মালামাল উদ্ধারে পুলিশ

August 6, 2020, এই সংবাদটি ১৬৪ বার পঠিত

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি॥ কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগরে অবস্থিত এক ব্যবসায়ীর মালামাল উদ্ধার করলো পুলিশ। শমশেরনগর বর্ষা এন্টারপ্রাইজ এর  ব্যবসায়ী মো: আব্দুল রউফ ২৩ মার্চ ২০২০ মৌলভীবাজার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট, ৩নং আমল আদালতে মালামাল উদ্ধারের নিমিত্তে একটি পিটিশন মামলা দায়ের করেন। যার নং ১৩৪/২০২০ (কমল:)।

পিটিশন মামলায় জানা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর বাজারের  মো: আব্দুল রউফ এর দোকান গৃহ থেকে  মো: ওয়াহিদ রুপ, ছালিক মিয়া ও অরুপ ভট্টাচার্য্য কর্তৃক মূল্যবান কাগজপত্র, খাতাপত্র, পাসপোর্ট,  দোকানের মুল্যবান মালামাল ইত্যাদি নিয়ে যান। এ ব্যাপারে মো: আব্দুল রউফ বাদী হয়ে ফৌ: কা: বি: এর ৯৬ ধারার বিধান মতে মালামাল মূল্যবাদ কাগজাত খাতাপত্র ও পাসপোর্ট ইত্যাদি উদ্ধারের নিমিত্তে তল্লাশী পরওয়ানা ইস্যুর প্রার্থনায় মৌলভীবাজার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট, ৩নং আমল আদালতে মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রেক্ষিতে আদালতের আদেশে বুধবার (৫ আগষ্ট) মোঃ ওয়াহিদ রুপের বাসা থেকে শমশেরনগর পুলিশ ফাাঁড়ির এসআই শাহ আলমের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা ১টি সোকেস, ১টি ক্যাশ বাক্স, ১টি ড্রয়ার, ১টি গ্লাস বক্স, ১টি টেবিল ফ্যান, ১ টি সিলিং ফ্যান, ২টি চৌকি, ব্যাংকের চেক বহি, জাতীয় পরিচয়পত্র, ১টি পাসপোর্ট, বাচ্চাদের সনদপত্র, বিকাশ এজেন্টের খাতাসহ আরো ৩টি খাতা ও ২টি রেইন কোর্ট উদ্ধার করেন।

মালামাল উদ্বারের সময় উপস্তিত ছিলেন, ইউপি সদস্য  শেখ রায়হান ফারুক, শমশেরনগর বণিক কল্যাণ সমিতির কোষাধ্যক্ষ জাহির মিয়া,হাজেরা বেগম প্রমুখ।

ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী আব্দুর রউফ বলেন, আমার ৩লাখ টাকার প্রসাধনীসহ অন্যান্য মালামাল পাইনাই, সে গুলা পেতে আমি আইনি লড়াই চালিয়ে যাবো।

শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ি এস আই শাহ অলম উদ্ধারের বিষয়টি সত্যতা স্বীকার করেন।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •