আদালতের নিষেধাজ্ঞার পরও হাকালুকির হাওরখাল বিল থেকে মাছ লুট

November 28, 2020, এই সংবাদটি ১৪০ বার পঠিত

আব্দুর রব॥ বড়লেখায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও মাধবকুণ্ড মৎস্যজীবী সমবায় সমিতি হাকালুকির সর্ববৃহৎ জলমহাল গুটাউরা হাওরখাল (বদ্ধ) বিল থেকে প্রতিদিন লাখ লাখ টাকার মাছ লুট করছে। সরকারী জলমহালের মাছ লুটের প্রতিবাদে ২৮ নভেম্বর শনিবার দুপুরে হাওরপারের কানুনগোবাাজরে এলাকাবাসী, বিভিন্ন মৎস্যজীবী সমিতির নেতৃবৃন্দ, মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তানগণ মানববন্ধন করেছেন।

হাওরখাল (বদ্ধ) জলমহালের ওপর সোনার বাংলা মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির হাইকোর্টে রিট মামলা নং-১৫৬১/১৮ এর মাধ্যমে মাধবকুণ্ড মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির ইজারা বাতিল ও আপিল মামলায় উচ্চ আদালত কর্তৃক স্থিতাবস্থা জারির পরও আইন লংঘন করে প্রভাবশালীরা বাধ কেটে পানি কমিয়ে মাছ লুট করছে।

মানববন্ধন সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বড়লেখা সোনার বাংলা মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা এখলাছুর রহমান, সহ সভাপতি আব্দুল খালিক বাদল, সাধারণ সম্পাদক সাহাব উদ্দিন, মৎস্যজীবি নেতা জসিম উদ্দিন, ফয়সল আহমদ, তাজুল ইসলাম, দুদু মিয়া, আব্বাস উদ্দিন প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, হাকালুকির মৎস্যসম্পদ জলদস্যুদের হাতে জিম্মি। সোনার বাংলা মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মৎস্যজীবী সমিতি জলমহালটির বৈধ ইজারাদার। হাওরখাল বিলের মাছ আহরণের উপর উচ্চ আদালতের স্থিতাবস্থা রয়েছে। আদালতে এ বিষয়ে আগামী ১০ ডিসেম্বর শুনানীর দিন ধার্য রয়েছে। কিন্তু আদালত অমান্য করে মাধবকুণ্ড মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির দস্যুরা মাছ লুট করছে। তারা মাছ লুট বন্ধ করতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •