ইয়াবা ব্যবসায়ীর হামলায় ৩ পুলিশ আহত পুলিশের গুলিতে নিহত ইয়াবা ব্যবসায়ী

January 5, 2017, এই সংবাদটি ৩২৮ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার॥ ইয়াবা ব্যাবসায়ীর অতর্কিত হামলায় গুরুতর আহত হয়েছেন এক পুলিশ কর্মকর্তা সহ আরো দুই পুলিশ কনস্টেবল। পুলিশের পাল্টা গুলিতে ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত। বুধবার ৪ জানুয়ারি রাত সাড়ে এগারোটার সময় শহরের গোবিন্দশ্রী এলাকার বেরিরপারস্থ যমুনা পেট্রোলপাম্পের সামনের ফজলু মিয়ার মুদি দোকানের সম্মুখে এ ঘটনা ঘটে।
আহতরা হলেন মৌলভীবাজার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক এস,আই আব্দুল মালেক, কনস্টেবল বজলুর রহমান ও কনস্টেবল সালাহ উদ্দীন। এদের মধ্যে এস,আই আব্দুল মালেকের অবস্থা আশংকাজনক।জানা যায় গোবিন্দশ্রীর ফজলু মিয়ার মুদি দোকানের সামনে শীর্ষ ইয়াবা ব্যাবসায়ী রুহেল ইয়াবা বেচা কেনা করছে, এমন সংবাদ পেয়ে নিয়মিত টহলের অংশ হিসেবে মৌলভীবাজার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক এস,আই আব্দুল মালেক এর নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল শহরের শ্রীমঙ্গল সড়কে যাচ্ছিলেন, এমন সময় ফজলু মিয়ার মুদি দোকানের সামনে পৌছা মাত্র দেখতে পান রুহেল তার আরো দুই সহযোগীদের নিয়ে সেখানে ইয়াবা বিক্রি করছে । ইয়াবা বিক্রি অবস্থায় তখন এস,আই আব্দুল মালেক হাতে নাতে রুহেলকে ধরে ফেলেন, ধস্তাদস্তির এক পর্যায়ে রুহেল তার সাথে থাকা চায়নিজ কোড়াল দিয়ে এস,আই আব্দুল মালেককে বেধরক কোপাতে থাকে, তখন তার অন্যরাও পুলিশ কনস্টেবল ফজলুর রহমান ও সালাহ উদ্দীনকে কোপাতে থাকে, তখন এস,আই আব্দুল মালেকের সাথে থাকা পিস্তল দিয়ে রুহেলকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়েন,এক পর্যায়ে অন্যান্য পুলিশও অাত্নারক্ষার্থে সন্ত্রাসীদের লক্ষ্যকরে দুই রাউন্ড গুলি ছুড়ে, তখন রুহেল গুলিবিদ্ধ হয়ে পালিয়ে যায়। পরে রাত সাড়ে বারোটার দিকে শহরতলীর পাগুলিয়া এলাকা থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পৌর কাউন্সিলার আয়াছ আহমদ রুয়েলকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপোর্দ করে। পুলিশ মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে আশে পুলিশ। এর পর রাত একটার দিকে সেখানে উপস্থিত মৌলভীবাজার মডেল থানার ওসি (তদন্ত) একে নজরুল ইসলাম জানান গুলিবিদ্ধ রুহেলের মারা যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান গুলিবিদ্ধ রুহেল সদর উপজেলার ১১ নং মোস্তফাপুর ইউনিয়নের গয়ঘর গ্রামের সায়েস্তা মিয়ার ছেলে। সে দীর্ঘদিন দিন যাবত মাদকসহ ইয়াবা কেনা বেচার সাথে জড়িত ছিল।

sequence-04_100100100

এ ঘটনার পর পালিয়ে যাওয়া অন্য আসামীদের ধরতে শহরের বিভিন্ন এলাকায় পুলিশ চিরুণী অভিযান চালায়। রাতেই পুলিশ সন্ত্রাসীদের কাছ থেকে ১০৩ পিচ ইয়াবা, চায়নিজ কোড়াল ও ছুরি পুলিশ উদ্ধার সহ ঘটনাস্থল থেকে বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করে। এদিকে আহত এস,আই আব্দুল মালেকের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় গভীর রাতে তাকে জরুরী ভিত্তিতে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিলেটের এম,এ জি ওসমানী মেডিকের কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। অন্যদুই পুলিশ কনস্টেবল কে মৌলভীবাজার সদর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। রাতে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহজালাল সহ পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তারা।
বৃহস্পতিবার দূপুর ১টায় মৌলভীবাজার মডেল থানায় সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ এ তথ্য জানায়। অন্যদিকে পুলিশের ছুড়া গুলিতে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যাওয়া রুহেলের লাশ ময়না তদন্ত ও সকল আইনী প্রদক্ষেপ শেষে তার পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেয়া হয়।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •