কমলগঞ্জে অবৈধভাবে গর্ভপাত ঘটানোয় ৬ জনের বিরুদ্ধে পুলিশের মামলা

September 27, 2018, এই সংবাদটি ৩৫৩ বার পঠিত

প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ॥ কমলগঞ্জ উপজেলার পতনঊষারে অবৈধভাবে গর্ভপাত করে সাত মাস বয়সী এক নবজাতককে নষ্ট করার অভিযোগ উঠেছে। পুলিশ নবজাতকের মরদেহ বাড়ির চুলার ভেতর থেকে উদ্ধার করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে পতনঊষার ইউনিয়নের আফসলগতি গ্রামের রিক্সা চালক রুশন মিয়ার বাড়িতে। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নবজাতকের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত সম্পন্ন করে। এ ঘটনায় পুলিশ প্রসূতি ও তার বোনকে গ্রেফতার করে ৬ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, পতনঊষার ইউনিয়নের পলিতকোন গ্রামের শুকর মিয়ার ছেলে সুমন প্রকাশ অলি (২৪), আফসলগতি গ্রামের রুশন মিয়ার মেয়ে রেফা বেগম (২৩), স্ত্রী সামছি বেগম (৫৫), ছেলে আব্দুর রহিম (৩২), করিম বক্স এর ছেলে মেহের বক্স (৬০) এর প্ররোচনায় ঔষধ সেবন করে অবৈধভাবে গর্ভপাতে সাত মাস বয়সের অপরিপূর্ণ এক মেয়ে শিশুর ভূমিষ্ট ঘটায় শেফা বেগম (২০)। মৃত শিশুটি ভূমিষ্টের পর ঘরের ভেতরে আগুন বিহীন একটি চুলায় ফেলে দেয়া হয়। খবর পেয়ে শমশেরনগর ফাঁড়ির পুলিশ অভিযান চালিয়ে বাড়ির আয়াতুন বেগমের ঘরের আগুন বিহীন একটি চুলা থেকে শিশুটির মৃতদেহ উদ্ধার করে। এ সময়ে পুলিশ শেফা বেগম ও তার বোন রেফা বেগমকে গ্রেফতার করে পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে আসে। এ ঘটনায় শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই আবু সায়েম বাদি হয়ে ৬জনকে আসামী করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

পতনঊষার ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য আব্দুল খালিক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

কমলগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) সুধীন চন্দ্র দাস মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গ্রেফতারকৃত দু’জনকে বুধবার আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •