কমলগঞ্জে এডমিট কার্ড সংগ্রহের সময় ফাজিল পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে অর্থ আদায়ের অভিযোগ

July 31, 2016,

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি॥ কমলগঞ্জ উপজেলার সফাত আলী সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসায় ফাজিল পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে এডমিট কার্ড সংগ্রহের সময় কেন্দ্র পরিচালনার ফি’র কথা বলে টাকা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। নিয়মবহির্ভূতভাবে প্রবেশপত্র সংগ্রহের সময় প্রতিষ্ঠানটি ৫শ টাকা হারে আদায় করেছে। কমলগঞ্জ উপজেলা উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম বলেন, এখন শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে কোন ফি আদায় করার কথা নয়। ফরম পুরণের সময় কেন্দ্র ফি-সহ সমুহ টাকা আদায় করেছে প্রতিষ্ঠানটি। এডমিটকার্ড সংগ্রহের সময় যদি কেউ টাকা আদায় করে থাকেন সেটি বে-আইনী। বিষয়টি তিনি খতিয়ে দেখছেন।
কমলগঞ্জ সফাত আলী সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, ফরম পূরণের সময় কেন্দ্র ফি-সহ সমুহ অর্থ পরিশোধ করেছি। রোববার ৩১ জুলাই থেকে পরীক্ষা শুরু হয়েছে, তাই ক্ষতির আশঙ্কায় সরাসরি প্রতিবাদ না করে অফিসের চাহিদা মতো টাকা পরিশোধ করে এডমিটকার্ড সংগ্রহ করেছি।
সফাত আলী সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওলানা আলাউদ্দিন আহমেদ এডমিটকার্ড সংগ্রহের সময় কেন্দ্র ফি’র কথা বলে প্রত্যেক শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ৪শ থেকে ৫শ টাকা হারে আদায় করার কথা স্বীকার করে বলেন, আমরা কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে আওতাধীন। বোর্ড থেকে লিখিতভাবে কেন্দ্র পরিচালনার ফি ৪ শত টাকা আদায়ের কথা বলা হয়েছে, তাই আমরা অন্যান্য খরচসহ ৫ শত টাকা আদায় করছি। এর বিপরীতে কোন মানি রিসিট দেয়া হয়না। উল্লেখ্য যে ,এই মাদ্রাসা থেকে ফাজিল ১ম,২য় ও ৩য় বর্ষের ১০৮ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •