কমলগঞ্জে নির্বাচনী পরবর্তী বিচ্ছিন্ন ঘটনায় মহিলাসহ আহত ৯ ॥ ঘরবাড়ি ভাংচুর

May 30, 2016, এই সংবাদটি ১৮৮ বার পঠিত

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি॥ কমলগঞ্জে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় দুই দিনে বিভিন্ন স্থানে ৯ জন আহত হয়েছেন। ভাংচুর করা হয়েছে বাড়িঘর ও বসত ঘরের আসবাবপত্র। হামলায় আহত ৬জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ২৮ মে শনিবার পঞ্চম ধাপের নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর আদমপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের কাটাবিল নামক গ্রামে পরাজিত প্রার্থী ও বর্তমান ইউপি সদস্য আব্দুল কাদিরের সমর্থকরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে অপর পরাজিত প্রার্থী আব্দুর রহমান পছন মিয়ার সমর্থক জমির মিয়া ও হাসিম মিয়ার উপর হামলা করেন। হামলায় গুর”ত্বর আহত এ দুই সমর্থককে কমলগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

Hamalaওইদিন রাতে পছনের সমর্থক কাশেম আহমদের বাড়িতে হামলা চালায় কাদিরের সমর্থকরা। হামলাকারীরা কাশেমের বসত ঘরের বেড়া দা দিয়ে কুপিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ করেন। দুই কর্মীর উপর হামলার ঘটনায় পরাজিত প্রার্থী আব্দুর রহমান পছন মিয়া বাদী হয়ে ও বাড়িতে হামলার ঘটনায় কাশেম আহমেদ বাদি হয়ে ২৯ মে রোববার রাতে কমলগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। এদিকে পরাজিত আব্দুল কাদিরের সমর্থকরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে এলাকায় মহড়া দেওয়ায় এলাকায় আতংক বিরাজ করছে। ভোটের পরদিন রোববার বিকালে ইসলামপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডেও চাম্পারায় চা বাগানে নির্বাচিত সদস্য রাজেশ নুনিয়ার সমর্থক ভরত সূর্য বংশী সাধুর উপর হামলা চালায় পরাজিত অমৃত গোয়ালার সমর্থকরা। ওইদিন সন্ধ্যায় চাম্পারায় চা বাগানের বড় লাইনের সন্তোষ দাসের বাড়িতে হামলা করে অমৃতের সমর্থকরা। এ সময় বসত ঘরের মালামাল ভাংচুর ও পরিবারের সদস্যদের মারধর করে তারা। রাতেই তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রোববার সন্ধ্যা রাতে পতনঊষার ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের ওসমানগড় নামক গ্রামে পরাজিত বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের হামলায় আওয়ামীলীগের বিজয়ী চেয়ারম্যানের মহিলা সমর্থক আছমা বেগম আহত হন। একইদিন রাতে আলীনগর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডেও বারামপুর নামক গ্রামের বিজয়ী সদস্য প্রার্থী তাব আলীর সমর্থকদের হামলায় পরাজিত প্রার্থী সোরহাব মিয়া ও তার স্ত্রী সুফিয়া বেগম এবং অপর পক্ষের দুইজন আহত হয়েছেন। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে সুফিয়া বেগমের ডান হাতের একটি আঙ্গুল দেহ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। গুর”ত্বর আহত সুফিয়াকে রোববার রাতেই মৌলভীবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
কমলগঞ্জ থানার ওসি বদর”ল হাসান বলেন, বিচ্ছিন্ন এ ঘটনাগুলো তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •