কমলগঞ্জে ২য় দিনের মতো ৩ জন কৃষকের দেড় একর জমির ধান কেটে দিল উপজেলা যুবলীগের নেতাকর্মীরা

April 28, 2021, এই সংবাদটি ১৭৩ বার পঠিত

প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ॥ কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর ইউনিয়নের ৩ জন কৃষকের প্রায় দেড় একর জমির ধান কেটে দিয়েছে উপজেলা যুবলীগের নেতাকর্মীরা। কৃষকদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনার বাস্তবায়ন ঘটাতে কেন্দ্রীয় যুবলীগের নির্দেশে ২য় দিনের মতো তারা এই কার্যক্রম করেন। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ধান কাটা কর্মসূচির উদ্বোধন করেন মৌলভীবাজার জেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক সৈয়দ রেজাউল রহমান সুমন। করোনা ভাইরাসের কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বুধবার ২৮ এপ্রিল সকাল সাড়ে ১০টায় শমশেরনগর ইউনিয়নের সতিঝিরগাঁও গ্রামের ক্বারী ফজলুল হক, আং রশিদ, অপু মিয়ার এক একর জমির ধান কেটে বাড়িতে পৌছে দেন উপজেলা যুবলীগের নেতৃবৃন্দরা। যুবলীগের এমন সহমর্মিতায় আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন কৃষক ক্বারী ফজলুল হক গংরা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক পৌর মেয়র মো. জুয়েল আহমেদ, যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল মালিক বাবুল, শায়েখ আহমদ, স্থানীয় মহিলা সদস্যা রেহেনা বেগম, সাবেক ইউপি সদস্য আবু বক্কর, লাঘাটাছড়া পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক নূরুল মোহাইমীন মিল্টন প্রমুখ।
যুবলীগ নেতাকর্মীরা পাকা ধান কেটে দেয়ায় লাঘাটাছড়া পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান, কৃষক আং রশিদ, অপু মিয়া, ক্বারী ফজলুল হক বলেন, ‘ধান কাটার উপযুক্ত সময় হলেও লকডাউনের কারণে শ্রমিক সংকটে পড়ি। এলাকায় যে শ্রমিক পাওয়া যায় তাদের মজুরি বেশি হওয়াতে ক্ষেতের ধান পাকার পরও তা কাটতে না পারায় ক্ষতির শঙ্কায় ছিলাম। যেখানে শ্রমিকের অভাবে জমির পাকা ধান কাটা নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভূগছিলেন তারা, সেখানে দেড় ঘণ্টার মধ্যে যুবলীগের নেতাকর্মীরা জমির সব ধান কেটে বাড়িতে পৌঁছে দেন।
কমলগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও পৌর মেয়র মো. জুয়েল আহমেদ বলেন, ‘লকডাউনের ২য় ধাপে শ্রমিক ও অর্থ সংকটের কারণে ২য় দিনের মতো শমশেরনগর ইউনিয়নের সতিঝিরগাঁও গ্রামে ৩ কৃষকের প্রায় দেড় একর জমির পাকা ধান কাটতে পারছিলেন না সংবাদ পেয়ে কমলগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের প্রায় অর্ধ শত নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে আমরা সেখানে যাই। আমরা ওই তিন কৃষকের প্রায় এক একর জমির ধান কেটে দেই। তাছাড়া ধান কাটা শেষ হলে আমরা সবাই মাথায় করে ট্রাকে তুলে ধান নিয়ে ঐ তিন কৃষকের বাড়িতে পৌঁছে দেই।’ তিনি আরো বলেন, ‘করোনার এই দূর্যোগকালীন সময় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষকদের পাশে দাঁড়ানোর যে নির্দেশনা দিয়েছেন তার বাস্তবায়ন ঘটাতেই কেন্দ্রীয় যুবলীগের নির্দেশেই আমরা উপজেলা যুবলীগ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ধান কাটার কর্মসূচি শুরু করি। ধান কাটার কার্যক্রম যুবলীগের অব্যাহত থাকবে।’
এর আগে গত ২৫ এপ্রিল কমলগঞ্জ পৌর এলাকার খুশালপুর গ্রামের ৩ কৃষকের এক একর জমির ধান কেটে দিয়েছিল উপজেলা যুবলীগের নেতাকর্মীরা।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •