কুলাউড়ায় ডাক্তারের অবহেলায় দেড়মাস বয়সী কন্যা শিশুর মৃত্যুর অভিযোগ

May 10, 2016, এই সংবাদটি ১৯৫ বার পঠিত

 এইচ ডি রুবেল॥ কুলাউড়া উপজেলা হাসপাতালে ডাক্তারের অবহেলায় ৯মে সোমবার দেড় মাস বয়সী হামিদা বেগম নামক এক কন্যা শিশুর মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ রিপোর্ট লেখার সময় শিশুর অভিভাবকরা সিভিল সার্জন ও কুলাউড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। কুলাউড়া থানার এসআই নুর হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন।

শিশুর চাচা আলী হোসেন জানান, জুড়ী উপজেলার উত্তর সাগরনাল গ্রামের মনোয়ারা বেগম তার শিশুকন্যা হামিদা বেগমের শ্বাসকষ্ট হলে রোববার দুপুরে তাকে কুলাউড়া হাসপাতালে (কেবিন সি ১-৩৮০১) ভর্তি করেন। রাতে হাসপাতালে নিয়মিত পরিদর্শণকালে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ মিজানুর রহমান শিশুকে ব্যবস্থাপত্র দেন। কিন্তু সকাল থেকে তার অবস্থার অবনতি হতে থাকে। দুপুরে শিশুর অভিভাবকরা আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ মঈন উদ্দিন আলমগীরকে অনুরোধ করেন শিশুটিকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করার জন্য। কিন্তু আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার তাতে কোন গুরুত্ব দেননি। বিকাল সোয়া ৪টায় শিশুকন্যা হামিদা বেগমের মৃত্যু হয়।

শিশুর অভিভাবকদের অভিযোগ, রাতে ডাক্তারকে দেখানোর পর শিশুকে কর্তব্যরত কোন ডাক্তার দেখতে আসেনি।

এ ব্যাপারে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ মিজানুর রহমান জানান, নিউমোনিয়ার সাথে উচ্চ রক্তচাপ থাকায় শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ডাক্তারের অবহেলায় নয়।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •