কুলাউড়ায় হাতি দিয়ে প্রচারণা!

May 5, 2016, এই সংবাদটি ১৬২ বার পঠিত

এম. মছব্বির আলী॥ একটি মা হাতি সঙ্গে বাচ্চা হাতি। মা হাতির ওপর বসে আছে মাহুত ও দুটি কিশোর এবং সামনে বাধা ২টি ফুটবল। মা ও বাচ্চা হাতি ছুটে চলছে এক বাড়ি থেকে অন্য বাড়িতে, এক গ্রাম থেকে অন্য গ্রামে। সামনে রয়েছেন হাতির মালিক দাবিদার ফজল মিয়া। হাতি দেখতে গ্রামের ছোট, বড় সকল বয়সের উৎসুক জনতার ভিড়। দেখলে মনে হবে অনেকটাই সার্কাস।
হাতির মালিক দাবিদার এই ফজল মিয়া এবারে ইউপি নির্বাচনে কুলাউড়া উপজেলার পৃথিমপাশা ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য প্রার্থী। তাঁর নির্বাচনী প্রতীক ফুটবল। তিনি ১ মে রোববার তাঁর নির্বাচনী প্রচারণায় ওয়ার্ডের ভোটারদের আকৃষ্ট করতে আচরণ বিধি লঙ্ঘণ করে প্রকাশ্যে দিনভর হাতি দিয়ে প্রচারণা চালান। স্থানীয়রা জানান, ফজল মিয়া রোববার দুপুর ১টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত হাতির ওপর তার নির্বাচনী ব্যানার ও প্রতীক ফুটবল লাগিয়ে ওই ওয়ার্ডের সুলতানপুর, গণিপুর, হাসামপুর, দৌলতপুর, মোদীপুর এই ৫টি গ্রামের ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাকে ভোট দেওয়ার জন্য অনুরুধ করেন। ফজল মিয়া হাতির মালিক নন, এগুলো তিনি ভাড়া দিয়ে এনেছেন এমনটাই স্থানীয় অনেকের অভিমত।
আচরণ বিধি লঙ্ঘণ করে হাতি দিয়ে প্রচারণার বিষয়ে জানতে চাইলে ফজল মিয়া প্রথমে বলেন, “এগুলো আমার হাতি, আমার আরেকটি হাতি রয়েছে সেটা যশোরের একটি সার্কাস পার্টিকে ভাড়া দিয়েছি। আমার ছেলের ইচ্ছে হাতি নিয়ে একটু ঘুরবে তাই হাতি নিয়ে বের হয়েছি।” কথোপকথনে একপর্যায়ে হাতিগুলো ভাড়া দিয়ে এনেছেন নাকি এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি এবার বলেন এগুলো আমার ছোট ভাইয়ের হাতি।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •