(ভিডিও সহ) খালেদা জিয়ার জ্ঞান না থাকায় সাবমেরিন কেবলে যুক্ত হতে দেশের ১৫০ কোটি টাকা ব্যায় হয় – মাহবুবুল আলম হানিফ এমপি

January 1, 2017, এই সংবাদটি ২৫৮ বার পঠিত

হোসাইন আহমদ॥ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ এমপি বলেছেন, বিশ্ব আজ হাতের মুঠোয়। তরুণ প্রজন্ম তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে বিশ্বের সাথে পাল্লা দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে অভাবনীয় সাফল্য ঘটেছে। গ্রামেগঞ্জে সর্বত্র তথ্যপ্রযুক্তি সেবা পৌছে গেছে। ১৯৯১ সালে বিএনপি যখন ক্ষমতায় আসে সেই সময় বিনামূল্যে সাবমেরিন কেবলের সংযোগ দিতে চেয়েছিল কিন্তু খালেদা জিয়া এটি প্রত্যাখান করেছিলেন, তিনি না নেয়ার যুক্তি দেখিয়েছিলেন এই সাবমেরিন কেবলে যুক্ত হলে দেশের সকল তথ্য বিদেশে পাচার হয়ে যাবে।
তিনি আরো বলেন প্রতিটি মানুষ তার শিক্ষার প্রয়োজন আছে, যদি প্রকৃত জ্ঞান না থাকে তা হলে পদে পদে ভুল হয়। তার জলন্ত প্রমান হলো খালেদা জিয়া। পরে সেই সাবমেরিন কেবল ১৫০ কোটি টাকা ব্যায় করে ১৯৯৬ সালে আওয়ামীলীগ সরকারের সংযোগ নিতে হয়।

4_1
তিনি শনিবার ৩১ ডিসেম্বর রাতে মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে চেম্বার অব কমার্সের আয়োজনে তিনদিনব্যাপী ‘বাংলাদেশ-ভারত বাণিজ্য সম্মেলন ও মৈত্রী উৎসব’ এর সমাপনী দিনে ‘বাংলাদেশ-ভারত তথ্যপ্রযুক্তি ও সংস্কৃতি জোরদার’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
এ সময় মাহবুবুল আলম হানিফ বলেন, বাংলাদেশের সাথে ভারতের ব্যাপক বাণিজ্য ঘাটতি রয়েছে, তা দূর হওয়া দরকার। ভারত অনেক পণ্য আমাদের দেশে রফতানি করে, কিন্তু আমরা খুবই নগণ্য পণ্য রফতানি করতে পারছি।
চেম্বার সভাপতি কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন আইসিটি ডিভিশনের মহাপরিচালক বনমালি ভৌমিক।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিছবাহ উদ্দিন সিরাজ, সদস্য অধ্যাপক রফিকুর রহমান, ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপদেষ্টা ড. শেখ জিনার আলী, সৈয়দা সায়রা মহসিন এমপি, সাবিহা মুসা এমপি, জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক নেছার আহমদ, পৌর মেয়র ফজলুর রহমান প্রমুখ।
তিনদিনব্যাপী সম্মেলনে পর্যটন ও শিল্পখাতে বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ তৈরি এবং বিনিয়োগের আহবান জানানো হয়েছে। অনুষ্ঠানে দু’দেশের শিল্প উদ্যোক্তা এবং ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •